বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

লিগ প্রতিযোগিতায় সুবিধাজনক অবস্থায় থাকলেও চ্যাম্পিয়নস লিগে আরও একবার হৃদয় ভেঙেছে ক্লাবটার। দ্বিতীয় রাউন্ড থেকেই বিদায় নিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে হেরে। তাই এখন থেকেই আগামী মৌসুমের জন্য পরিকল্পনা করা শুরু করে দিয়েছে ক্লাবটি, এমনটাই জানিয়েছে লেকিপ। যে পরিকল্পনায় এক মেসি ছাড়া কোনো আর্জেন্টাইন খেলোয়াড়ের ঠাঁই নেই। লেকিপ সংবাদটার শিরোনামও দিয়েছে যথাযথ, ‘পিএসজিতে আর্জেন্টাইন–যুগের সমাপ্তি।’

২০১৫ সালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে পিএসজিতে যোগ দেওয়া দি মারিয়ার সঙ্গে এ মৌসুমের পরই চুক্তি শেষ হতে চলেছে পিএসজির। পিএসজির ব্রাজিলিয়ান ক্রীড়া পরিচালক লিওনার্দো নাকি দি মারিয়ার চুক্তি বাড়াতে চাইছেন না একদম। দি মারিয়াও অবস্থা বুঝে নতুন ক্লাব খোঁজা শুরু করে দিয়েছেন বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যমটি। সামনে যেহেতু কাতার বিশ্বকাপ, এমন অবস্থায় ইউরোপের বাইরে যেতে চাইছেন না দি মারিয়া। আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনির নজরে থাকার জন্য ইউরোপের প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ কোনো লিগেই খেলতে চান গত কোপা আমেরিকার ফাইনালে গোল করে আর্জেন্টিনাকে শিরোপা জেতানো এ উইঙ্গার।

default-image

ওদিকে সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার পারেদেসের সঙ্গে পিএসজির চুক্তি শেষ হবে ২০২৩ সালের জুনে। হিসাব অনুযায়ী, আরও এক বছর চুক্তির মেয়াদ থাকলেও এএস রোমার সাবেক এ মিডফিল্ডারকে এখনোই বিক্রি করে দিতে চাইছে পিএসজি। ওদিকে ইকার্দিরও একই অবস্থা। ইন্টার মিলানের সাবেক এ স্ট্রাইকারের সঙ্গে পিএসজির চুক্তি ২০২৪ সালে শেষ হলেও পিএসজি দলে রাখতে চাইছে না।

বাকি আর্জেন্টাইনদের বিক্রি করে দিতে চাইলেও মেসির ব্যাপারে এমন কোনো পরিকল্পনা নেই দলটার। ২০২৩ সালে পিএসজির সঙ্গে চুক্তি শেষ হতে যাওয়া সাবেক এ বার্সেলোনা তারকাকে ছাড়তে চাইছে না পিএসজি।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন