বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

গতকাল রাতেই চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর ১৫ দল ঠিক হয়ে গেছে। বৈরী আবহাওয়ার কারণে শুধু গ্রুপ এফ থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গীর নাম জানা যায়নি। আজ রাতেই ভিয়ারিয়াল-আতালান্তা ম্যাচে ১৬তম দলের নামও জানা যাবে। আগামী সোমবার শেষ ষোলোর ম্যাচে কোন দলগুলো মুখোমুখি হবে, সেটা জানিয়ে দেওয়া হবে। নিজেদের গ্রুপে সেরা হয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

ওদিকে নিজেদের গ্রুপে ম্যানচেস্টার সিটির পেছনে ছিল পিএসজি। ফলে ইউনাইটেড ও পিএসজির মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা আছে। হিসাব–নিকাশ বলছে, মেসি-নেইমারের পিএসজি ও রোনালদোর ইউনাইটেডের মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা বেশ ভালো।

default-image

চ্যাম্পিয়নস লিগে শেষ ষোলোর ড্র হওয়ার আগে কিছু মাপকাঠি দেওয়া থাকে। একটি গ্রুপের শীর্ষে থাকা দল অন্য গ্রুপের শীর্ষে থাকা দলের মুখোমুখি হতে পারে না। তেমনি রানার্সআপ হয়ে উঠে আসা দলের সঙ্গে অন্য গ্রুপের রানার্সআপ দলের খেলা পড়বে না। একটি গ্রুপ থেকে যে দুটি দল উঠে আসে, তাদের মুখোমুখি হওয়ার সুযোগ নেই। একই দেশের দলগুলোও শেষ ষোলোতে মুখোমুখি হয় না। ফলে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গে ম্যানচেস্টার সিটি, লিভারপুল, চেলসি, ভিয়ারিয়াল বা আতালান্তার খেলা পড়বে না। পিএসজির যেমন সিটি বা ফ্রান্সের লিলের সঙ্গে খেলা পড়বে না।

default-image

এ ছাড়া কোন দলের নাম আগে তোলা হবে, সে অনুযায়ী ম্যাচ হওয়ার সম্ভাবনা বদলে যায়। হিসাব–নিকাশ জানাচ্ছে, ইউনাইটেডের সঙ্গে ম্যাচ হওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি আতলেতিকো মাদ্রিদ ও ইন্টার মিলানের। ইউনাইটেড-আতলেতিকো বা ইউনাইটেড-ইন্টার ম্যাচ হওয়ার সম্ভাবনা ১৮.৭১ শতাংশ। আর বহু আকাঙ্ক্ষিত ইউনাইটেড-পিএসজি ম্যাচ হওয়ার সম্ভাবনা ১৭.৮৬ শতাংশ।

পরিসংখ্যানের দিক থেকে এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগে যে ম্যাচের সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি, সেটা হলো চেলসি-রিয়াল মাদ্রিদ। গতবার সেমিফাইনালে মুখোমুখি হওয়া এ দুই দলের ম্যাচ হওয়ার ৩১.২৭ শতাংশ সম্ভাবনা দেখছে পরিসংখ্যান। তবে রিয়াল-পিএসজি ম্যাচের সম্ভাবনাও বেশ বেশি। রিয়াল মাদ্রিদ ও দলটির সাবেক অধিনায়কের দেখা হওয়ার সম্ভাবনা ১৯.৩৬ শতাংশ।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন