ক্লাবের অনুশীলনে ফিরেছেন মেসি।
ক্লাবের অনুশীলনে ফিরেছেন মেসি।ছবি: রয়টার্স

বার্সেলোনায়  আরও এক বছর থাকবেন লিওনেল মেসি। সিদ্ধান্তটা নিয়েছেন বার্সেলোনা অধিনায়ক নিজেই, তবে সে সিদ্ধান্তে নিজেই খুশি এটা বলা যাবে না। বর্তমান বোর্ডের অধীনে আর খেলতে চান না মেসি, কিন্তু দলবদলের জন্য আদালতে যেতে চাননি বলেই আরও এক মৌসুম গায়ে চড়াবেন মেরুন-নীল জার্সি। মেসি খুশি হোন না বা না হোন, এ সিদ্ধান্তে খুবই খুশি স্যামুয়েল ইতো। নিজের ‘ছেলে’কে যে অন্য কোনো ক্লাবে দেখতে প্রস্তুত নন সাবেক বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড।

বার্সেলোনায় সমৃদ্ধ এক ক্যারিয়ার কাটানো ইতো মেসির সঙ্গে দুটি চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছেন, জিতেছেন লা লিগাও। প্রথম ট্রেবল জয়ী দলের সদস্য ইতো কোনোভাবেই চান না মেসি ক্লাব ছাড়ুক। লা লিগার প্রচারণা করতে গিয়ে ক্যামেরুনের এই সাবেক স্ট্রাইকার বলেছেন, মেসি আমার ছেলের মতো। সে রয়ে গেছে এবং আমি অনেক খুশি।

বিজ্ঞাপন
default-image

গত মৌসুম খুব একটা ভালো কাটেনি মেসির। গত এক দশকে কখনো খালি হাতে ফিরতে হয়নি মেসিকে। প্রায় প্রতি মৌসুমে লিগ, চ্যাম্পিয়ন লিগ কিংবা কোপা দেল রের কোনো একটি জিতেছেন। আবার যে মৌসুমে এ তিন শিরোপা জিতেননি, সেবার কোনো সুপার কাপ জিতেছেন। কিন্তু এক যুগ পর এই প্রথম কোনো ধরনের শিরোপা না জিতেই ফিরেছেন। ২০১৪ মৌসুমের পর এই প্রথম কোপা দেল রের ফাইনালে ওঠেনি বার্সেলোনা। লিগে রোনালদোবিহীন রিয়াল মাদ্রিদের কাছে শিরোপা খুইয়েছে। চ্যাম্পিয়নস লিগ কোয়ার্টার ফাইনালে হয়েছে সবচেয়ে বড় ভরাডুবি। ইতিহাসের সবচেয়ে বাজে পারফরম্যান্স দেখিয়েছে তারা। বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ৮-২ গোলে উড়ে গেছে।

বিজ্ঞাপন

সে হারের ধাক্কায় চাকরি হারিয়েছেন কোচ কিকে সেতিয়েন। মেসিও দল ছাড়ার অনেক চেষ্টা করেছেন দলের মধ্যে এত অনিয়ম দেখে। দশ দিনব্যাপী নানা আলোচনার পরও যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে মেসি যে খুশি নন সেটা বিশেষ সাক্ষাৎকারেই জানিয়ে দিয়েছেন। ইতো এতে স্বস্তি পেয়েছেন, তবে সাবেক ফরোয়ার্ডের ধারণা শুধু তাঁর ‘ছেলে’কে ধরে রাখলেই চলবে না, আরও মানসম্পন্ন খেলোয়াড় দরকার বার্সেলোনার, ‘দলের আরও অনেক বার্সেলোনা-ঘরানার খেলোয়াড় দরকার। খেলোয়াড় যারা টিকি-টাকায় অভ্যস্ত, বক্স-টু-বক্স নয়।’ ইতোর এ কথায় অবশ্য মন খারাপ হতে পার আর্তুরো ভিদালের। বার্সেলোনায় বিদায় ঘণ্টা বেজে যাওয়া এই বক্স-টু-বক্স মিডফিল্ডার কদিন আগেই বলেছেন, বার্সেলোনার ডিএনএ নয় আরও বেশি বক্স-টু-বক্স খেলোয়াড় দরকার দলটির। বার্সেলোনা যদি ইতোর পরামর্শ মানে তাহলে ভিদালের মতো খেলোয়াড়ের বার্সেলোনা পর্ব শেষ হয়ে যাবে।

বিজ্ঞাপন

ইতোর অবশ্য ও নিয়ে মাথাব্যথা নেই। বরং টিকিটাকার জন্য আদর্শ খেলোয়াড় সার্জিও বুসকেটসের ফর্ম নিয়েই বেশি চিন্তিত তিনি, ‘সে যখন দারুণ ফর্মে থাকে, বার্সেলোনা সব সময় শিরোপা জেতে। বার্সেলোনা আগামী মৌসুমে লিগ চ্যাম্পিয়ন হবে। তবে আমি চাই আমার প্রাণের দল মায়োর্কাও প্রথম স্তরে ফিরে আসুক।’


বার্সেলোনার লিগ মৌসুম শুরু একটু পিছিয়েছে এবার। চ্যাম্পিয়নস লিগ নিয়ে ব্যস্ত থাকায় অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের মতোই একটু দেরিতে লিগে নামবে তারা। ২৭ সেপ্টেম্বর ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে ২০২০/২১ মৌসুম শুরু হবে বার্সেলোনার। তবে প্রাক মৌসুম শুরু হচ্ছে আগামী ১২ সেপ্টেম্বর। স্পেনের তৃতীয় স্তরের ক্লাব জিমনাস্টিকের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচেই প্রথম নিজের পরিকল্পনার ছাপ দেখাবেন নতুন কোচ রোনাল্ড কোম্যান।

মন্তব্য পড়ুন 0