বার্সেলোনার সভাপতির সঙ্গে আলোচনায় বসতে মেসির বাবা হোর্হে মেসি শহরে ঢুকতেই তাঁকে ঘিরে ধরেছে সংবাদমাধ্যমের লোকজন ও বার্সার সমর্থকেরা। এক সমর্থক লিখে এনেছে, ‘মেসি তোমার মুখটা দেখাও’।
বার্সেলোনার সভাপতির সঙ্গে আলোচনায় বসতে মেসির বাবা হোর্হে মেসি শহরে ঢুকতেই তাঁকে ঘিরে ধরেছে সংবাদমাধ্যমের লোকজন ও বার্সার সমর্থকেরা। এক সমর্থক লিখে এনেছে, ‘মেসি তোমার মুখটা দেখাও’। ছবি: রয়টার্স

লিওনেল মেসির ভবিষ্যৎ ঠিকানা কী—ফুটবল বিশ্বে এখন ঘুরছে এমন একটি প্রশ্ন। তর্কসাপেক্ষে সময়ের সেরা ফুটবলারকে পাওয়ার দৌড়ে আছে অনেক দলই। ম্যানচেস্টার সিটি, পিএসজি, ইন্টার মিলান, জুভেন্টাস...আপাতত এই ক্লাবগুলোর কথাই শোনা যাচ্ছে বেশি। মেসি বার্সেলোনা ছাড়বেন বলে ঘোষণা দেওয়ার পর থেকে প্রায় প্রতিদিনই খবর আসছে—অমুক ক্লাব চাইছে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে, তমুক ক্লাব পেতে পারে তাঁকে!

বেশির ভাগ ফুটবল অনুসারীরই ধারণা শেষ পর্যন্ত মেসি বার্সেলোনা ছাড়লে তাঁকে ম্যানচেস্টার সিটি পাবে। দলটির কোচ এখন পেপ গার্দিওলা বলেই এমন ধারণা করা হচ্ছে। গার্দিওলা যে বার্সেলোনায় মেসির কোচ ছিলেন। মেসি সাবেক গুরুর কাছেই ফিরে যাবেন, এমন ভাবনা থেকেই ধারণা করা হচ্ছে। প্রিমিয়ার লিগ, সিরি ‘আ’, লিগ ওয়ান—আসলে কোথায় যেতে পারেন মেসি? অথবা কোন লিগে গেলেই-বা ভালো করবেন তিনি?

বিজ্ঞাপন

এই প্রশ্নের উত্তরে টটেনহামের সাবেক কোচ মরিসিও পচেত্তিনো বলেছেন, মেসি যেখানে চাইবেন সেখানেই খেলতে পারবেন। আর যে লিগেই মেসি খেলুন না কেন, সেরা তিনি হবেনই। আর্জেন্টাইন কোচ তাঁর স্বদেশিকে নিয়ে বলেছেন, ‘যে কোনো কিছুই ঘটতে পারে। মেসি যেখানে চাইবে সেখানেই খেলতে পারবে। যেটা হোক স্পেন বা প্রিমিয়ার লিগ। যে কোনো লিগেই সেরা হতে প্রস্তুত মেসি।’

বিজ্ঞাপন
default-image

বার্সেলোনায় কিকে সেতিয়েন বরখাস্ত হওয়ার পর দলটির কোচ হওয়ার জন্য ফেবারিটের তালিকায় ছিলেন পচেত্তিনো। গত নভেম্বরে টটেনহাম থেকে বরখাস্ত হওয়ার পর থেকেই তিনি চাকরিহীন। শেষ পর্যন্ত বার্সায় আর যাওয়া হয়নি তাঁর। বার্সেলোনার নতুন কোচ হয়েছেন ক্লাবটির সাবেক ডাচ তারকা রোনাল্ড কোম্যান।
পচেত্তিনোর বার্সার কোচ হওয়ার সম্ভাবনা দেখেই ক্লাবটির এক দল সমর্থক ২০১৮ সালে তাঁর বলা একটি কথা সামনে নিয়ে আসে। সেই সময় তিনি বলেছেন, ‘বার্সার কোচ হওয়ার বদলে আমি আর্জেন্টিনার খামারে কাজ করাটাকেই প্রাধান্য দেব।’ বার্সার নগর প্রতিদ্বন্দ্বী এসপানিওলের সাবেক খেলোয়াড় পচেত্তিনো সেই বক্তব্য নিয়ে সম্প্রতি বলেছেন, ‘আমি ধারণা করি আমার ওই বক্তব্য বার্সার সমর্থকেরা নিতে পারেনি, তাই আমাকেও তারা মেনে নিতে পারেনি। তবে এটা সত্যি কখনোই আমি বার্সার কোচ হওয়ার প্রস্তাব পাইনি।

বিজ্ঞাপন

বার্সার নগর প্রতিদ্বন্দ্বী এসপানিওলে খেলেছেন বলে ন্যু ক্যাম্পে যে তাঁর কোচ হিসেবে যাওয়া কঠিন এটা ভালো করেই জানেন পচেত্তিনো। তাই তো বলেছেন, ‘আমাকে যারা চেনে তারা সবাই একটি বিষয়গুলো জানে। এই ক্লাবটির (বার্সা) সঙ্গে আমার নাম জড়ানোটা খুব কঠিন হবে। এমন অনেক বিষয় আছে, যা এক সঙ্গে যায় না!’

মন্তব্য পড়ুন 0