কাল মেসের বিপক্ষে ম্যাচে শেষ মুহূর্তে চোট পেয়েছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে।
কাল মেসের বিপক্ষে ম্যাচে শেষ মুহূর্তে চোট পেয়েছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে।ছবি: রয়টার্স

টানা চতুর্থবারের মতো লিগ জয়ের অভিযানের শুরুটা এবার খুব ভালো ছিল না পিএসজির। প্রথম রাউন্ড শেষে নেইমার-কিলিয়ান এমবাপ্পেরা ছিলেন ১৬তম স্থানে। অন্যান্য বছর যেমন প্রথম থেকেই লিগের শীর্ষে জাঁকিয়ে বসে পিএসজি, এবার তেমনটা দেখা যায়নি। ৩১, ৩২, ৩৩—টানা এই তিন রাউন্ড দুইয়ে থাকার পর কাল আবার লিগ ওয়ানের শীর্ষে উঠেছে পিএসজি। কিন্তু উপলক্ষটা সেভাবে উপভোগ করতে পারছে কই মরিসিও পচেত্তিনোর দল!

যাঁর জোড়া গোলে পিএসজি মেসকে ৩-১ ব্যবধানে হারিয়ে শীর্ষে উঠেছে, সেই ফরাসি স্ট্রাইকার কিলিয়ান এমবাপ্পে যে মাঠ ছেড়েছেন খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে। ধারণা করা হচ্ছে, ঊরুর চোট নিয়েই মাঠ ছেড়েছেন এমবাপ্পে। চোট কতটা গুরুতর তা এখনো জানা যায়নি। হয়তো ফ্রেঞ্চ লিগ আঁতে নিজেদের পরের ম্যাচের আগেই সেরে উঠবেন এমবাপ্পে। কিন্তু পচেত্তিনোকে কেউ সেই আশ্বাস দিলেও তাঁর কপালের ভাঁজ থেকেই যাচ্ছে। কারণ, পিএসজির কাছে এখন ফ্রেঞ্চ লিগ আঁর চেয়েও বেশি গুরুত্বপূর্ণ চ্যাম্পিয়নস লিগ।

বিজ্ঞাপন
default-image

পচেত্তিনো আর পিএসজির দুশ্চিন্তা একটাই—ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে প্রথম লেগের ম্যাচে এমবাপ্পেকে পাওয়া যাবে তো? আগামী বুধবার প্রথম লেগের ম্যাচটি পিএসজি খেলবে নিজেদের মাঠে। ম্যান সিটির মাঠে দ্বিতীয় লেগ খেলতে যাবে তারা আগামী ৪ মে। পিএসজির কোচ পচেত্তিনো অবশ্য আশা করছেন ম্যান সিটির বিপক্ষে প্রথম লেগেই পুরো ফিট এমবাপ্পেকে পাবেন তিনি, ‘আমরা আশা করছি, চোটটা খুব গুরুতর নয়। মাঠ ছাড়ার সময় কিলিয়ান শান্তই ছিল। কিন্তু অনেক সময় হালকা চোটও অনেক যন্ত্রণা দিতে পারে।’

মেসের বিপক্ষে কাল ৪ মিনিটেই পিএসজিকে এগিয়ে দেন এমবাপ্পে। ৪৬ মিনিটে মেস সমতায় ফেরার পর ৫৯ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন এমবাপ্পে। এরপর ৮৭ মিনিটে চোট নিয়ে মাঠ ছাড়েন ফরাসি স্ট্রাইকার। নেইমারের নিষ্প্রভ হয়ে থাকা ম্যাচে এর দুই মিনিট পরই পেনাল্টি থেকে গোল করে স্কোরলাইন ৩-১ করেন মাউরো ইকার্দি। আর্জেন্টাইন এই স্ট্রাইকার ৮১ মিনিটে নেইমারের বদলি হিসেবে মাঠে নেমেছিলেন।

default-image

মেসের বিপক্ষে কালকের এ জয়ের পর ৩৪ ম্যাচে ৭২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে পিএসজি। তবে আজই আবার শীর্ষস্থানটা হারাতে পারে মরিসিওর দল। লিওঁর মাঠে লিল জিতলেই শীর্ষে উঠে যাবে তারা। এই মুহূর্তে ৩৩ ম্যাচে ৭০ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে লিল। সমান ম্যাচে ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে মোনাকো আছে তৃতীয় স্থানে। চতুর্থ স্থানে থাকা লিওঁর পয়েন্ট ৩৩ ম্যাচে ৬৭। পয়েন্ট তালিকার ওপরের দিকে তাকালে এটা স্পষ্ট যে ফ্রেঞ্চ লিগ আঁর শিরোপার লড়াইটা বেশ জমেই উঠেছে শেষ দিকে এসে।

তবে এ লড়াইয়ের চেয়ে পচেত্তিনোর মাথায় এখন বেশি থাকার কথা চ্যাম্পিয়নস লিগ। কাতারের ধনকুবের নাসের আল খেলাইফি ক্লাবটি কেনার পর থেকেই যে একটি চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপার স্বপ্ন দেখে আসছেন। সেই স্বপ্ন তাঁর এখনো পূরণ হয়নি। গতবার ফাইনালে উঠলেও বায়ার্নের কাছে হেরে তাদের সেই স্বপ্ন বিসর্জন গেছে। এবার অবশ্য পিএসজিকে আরও বেশি করে স্বপ্ন দেখাচ্ছিল এমবাপ্পের দুর্দান্ত ফর্ম।

বিজ্ঞাপন
default-image

শেষ ষোলোতে বার্সেলোনার বিপক্ষে চোটের কারণে খেলতে পারেননি দলের অন্যতম সেরা তারকা নেইমার। সেই লড়াইয়ে পিএসজিকে বলতে গেলে একাই টেনেছেন এমবাপ্পে। প্রথম লেগে বার্সেলোনার মাঠ ন্যু ক্যাম্প থেকে ৪-১ গোলে জিতে আসে পিএসজি। দলকে বড় জয় এনে দিতে এমবাপ্পে করেছিলেন দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিক। দ্বিতীয় লেগে ১-১ গোলের ড্রয়ে পেনাল্টি থেকে পিএসজির গোলটি করেছেন এমবাপ্পেই।

কোয়ার্টার ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে নেইমার খেললেও আলো কেড়ে নিয়েছিলেন এমবাপ্পে। বায়ার্নের মাঠে প্রথম লেগে দলকে ৩-২ গোলে জেতাতে ফরাসি স্ট্রাইকার করেছিলেন জোড়া গোল। দ্বিতীয় লেগে অবশ্য গোল পাননি এমবাপ্পে, পিএসজি হেরেছে ১-০ গোলে। তবে দুই লেগ মিলিয়ে ফল ৩-৩ হলেও অ্যাওয়ে গোলের হিসাবে সেমিফাইনালে উঠেছে পিএসজি।

default-image

এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগে এমবাপ্পে কতটা ছন্দে আছেন, তা স্পষ্ট হবে পরিসংখ্যানের দিকে তাকালেই। ৮ গোল নিয়ে এখন পর্যন্ত টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনি। সুযোগ আছে সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়ারও। কারণ, ১০ গোল নিয়ে এখন যিনি সর্বোচ্চ গোলদাতা, সেই আর্লিং হরলান্ড এরই মধ্যে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়েছেন। ৬ গোল নিয়ে তৃতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকার ছয়জনের মধ্যে একজনই এখনো টিকে আছেন টুর্নামেন্টে। তিনি এমবাপ্পেরই সতীর্থ নেইমার। গোল অ্যাসিস্টের দিক থেকেও এমবাপ্পে খুব একটা পিছিয়ে নেই। ৩টি অ্যাসিস্ট নিয়ে তৃতীয় সর্বোচ্চ অ্যাসিস্ট করা খেলোয়াড়দের ছয়জনের তালিকায় আছেন তিনি।

এখন দেখা যাক, এমবাপ্পেকে নিয়ে পিএসজি মাঠে নামতে পারে কি না।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন