ম্যানচেস্টার সিটি তারকা সের্হিও আগুয়েরো
ম্যানচেস্টার সিটি তারকা সের্হিও আগুয়েরোফাইল ছবি: এএফপি

ইউরোপীয় ফুটবলে শীতকালীন দলবদল চলছে এখন। মাসজুড়ে ক্লাবগুলো পছন্দের খেলোয়াড় কিনে নিজেদের শক্তি বাড়ানো কিংবা দুর্বলতা কাটাতে চাইবে, আবার অপ্রয়োজনীয় খেলোয়াড় ছেড়ে খরচ কমাতে চাইবে।

ইউরোপের প্রধান লিগগুলোর দলবদল চলবে চলতি মাসের শেষ দিন পর্যন্ত। এখন তাই হাজারো দলবদলের গুঞ্জনে মুখর ইউরোপীয় ফুটবলপাড়া।

সম্ভাব্য দলবদলের জন্য বাজারে ভাসছেন অনেক খেলোয়াড় ও তাঁদের প্রতি আগ্রহী ক্লাবের নাম। সাম্প্রতিক গুঞ্জনগুলো একনজরে দেখে নেওয়া যাক।

বিজ্ঞাপন

আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডারের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করছে ইউনাইটেড
২০১৪ বিশ্বকাপের পরপরই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দিয়েছিলেন মার্কোস রোহো। কখনোই দলে জায়গা পাকা করতে পারেননি। অবশেষে ইউনাইটেড থেকে মুক্তি ঘটছে তাঁর। স্কাই স্পোর্টস জানিয়েছে, রোহোর সঙ্গে চুক্তি বাতিল করতে চলেছে ইউনাইটেড। চুক্তি বাতিল হয়ে গেলে নিজের দেশে ফিরতে আগ্রহী রোহো। শোনা যাচ্ছে, বোকা জুনিয়র্সে ফিরতে পারেন এই সেন্টারব্যাক। ৩০ বছর বয়সী এ তারকা মাংসপেশির চোট সারাতে আর্জেন্টিনাতেই রয়েছেন, অনুশীলন করছেন বোকার সঙ্গে।

সাবেক স্ট্রাইকারকে দলে নিতে আগ্রহ নেই গার্দিওলার
এএস রোমার বসনিয়ান স্ট্রাইকার এডিন জেকোর সঙ্গে কোচ পাওলো ফনসেকার সম্পর্ক ভালো নয়, এ পুরোনো খবর। দলবদলের এই শেষ কয়েক দিন ধরে রোমা চাইছে জেকোকে অন্য কোনো দলে পাঠাতে। সাবেক ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটিও আছে এ তালিকায়। তবে সিটির কোচ গার্দিওলাই চাইছেন না, জেকোর মতো কেউ দলে আসুক। ওদিকে ইন্টার মিলানে জেকোর যাওয়ার সম্ভাবনাও নেই, বেতনসংক্রান্ত কারণে আলোচনা ভেস্তে গেছে।

default-image

অবশেষে ডিফেন্ডার আনছে লিভারপুল
দুই মূল সেন্টারব্যাক ভার্জিল ফন ডাইক ও জো গোমেজ মৌসুমের শুরুর দিকেই চোটে পড়ে চলে গিয়েছিলেন মাঠের বাইরে। পরে বিভিন্ন সময়ে চোটে পড়েছেন জল মাতিপ কিংবা ফাবিনিওর মতো তারকারাও। রিস উইলিয়ামস কিংবা ন্যাট ফিলিপসের মতো আনকোরা তারকাদের নিয়ে আর কত চালানো যায়? তাই নতুন ডিফেন্ডার কেনা হবে না, এমন গোঁ ধরে থাকা লিভারপুলের কর্তাব্যক্তিরাও অবশেষে বুঝেছেন, একজন ডিফেন্ডার অন্তত লাগবেই। না হয় লিগ শিরোপা ধরে রাখা তো দূর, আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে জায়গা করে নেওয়াও কষ্টকর হবে। সে লক্ষ্যে বেশ কিছু ডিফেন্ডারদের দিকে নজর দিয়েছেন তাঁরা, যাঁদের স্বল্পমেয়াদি চুক্তিতে দলে আনা যায়। এদের মধ্যে সর্বশেষ নাম, নিউইয়র্ক রেড বুলসের আমেরিকান সেন্টারব্যাক অ্যারন লং, জানিয়েছে ইএসপিএন।

জোড়া ব্রাজিলিয়ান আনছে ম্যানচেস্টার সিটি?
ফ্লুমিনেন্সের ১৭ বছর বয়সী দুই তরুণ ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার কেকি ও মেতিনহোকে দলে আনতে পারে ম্যানচেস্টার সিটি। যাঁদের জন্য সম্মিলিত খরচ হতে পারে ৯০ লাখ পাউন্ডের মতো। এমনটাই জানিয়েছে গোল ডটকম।

আর্জেন্টাইন রাইটব্যাকের কদর ইউরোপে
আর্জেন্টাইন জাতীয় দলের মূল রাইটব্যাক গঞ্জালো মন্তিয়েলকে দলে আনার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ইউরোপের বিভিন্ন ক্লাব। যার মধ্যে আছে স্পেনের ভিয়ারিয়াল, ফ্রান্সের অলিম্পিক লিওঁ ও ইংল্যান্ডের ওয়েস্ট হাম। তবে মন্তিয়েলের ক্লাব রিভার প্লেট জানিয়ে দিয়েছে, নব্বই লাখ পাউন্ডের কমে এই রাইটব্যাককে ছাড়বে না তারা।

default-image

ব্রাজিলিয়ান তারকাদের নিয়ে আগ্রহ মিলানে
দুই ব্রাজিলিয়ান তারকাকে দলে আনার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে এসি মিলান, এমনটাই জানিয়েছে ইতালিয়ান সংবাদ মাধ্যম তুত্তোস্পোর্তস। এদের মধ্যে একজন বায়ার্ন মিউনিখের ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার দগলাস কস্তা, যিনি বায়ার্নের অন্যান্য উইঙ্গারদের কারণে সেভাবে মূল একাদশে সুযোগ পাচ্ছেন না। আরেকজন আবার ডিফেন্ডার। দলের মূল লেফটব্যাক থিও হার্নান্দেজের বিকল্প হিসেবে জার্মান ক্লাব অগসবুর্গের ব্রাজিলীয় লেফটব্যাক ইয়াগোকে পছন্দ হয়েছে মিলানের।

যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন আগুয়েরো?
সের্হিও আগুয়েরোর সঙ্গে আসছে জুনে ম্যানচেস্টার সিটির চুক্তি শেষ হয়ে যাচ্ছে, এ সবার জানা। কিন্তু চুক্তি শেষের পর আগুয়েরো কোথায় যাবেন, নিশ্চিত নয়। টিএনটি স্পোর্টসের খবর সত্যি মানলে, আগামী জুনে এমএলএসে পাড়ি জমাচ্ছেন আগুয়েরো। লস অ্যাঞ্জেলস এফসি তাঁকে দলে পেতে দেনদরবার শুরু করে দিয়েছে।
এ তো গেল গুঞ্জনের খবর। কিন্তু এ পর্যন্ত কোন কোন খেলোয়াড় দল পরিবর্তন করলেন? লম্বা তালিকাটা একনজরে দেখে নেওয়া যাক—

বিজ্ঞাপন

সম্পাদিত ধার চুক্তি:

জেসি লিনগার্ড (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে ওয়েস্ট হ্যাম)
আদোলফো গাইচ (সিএসকেএ মস্কো থেকে বেনেভেন্তো)
মার্টিন ওডেগার্ড (রিয়াল মাদ্রিদ থেকে আর্সেনাল)
আরকাদিউশ মিলিক (নাপোলি থেকে মার্শেই)
উইলিয়ান জোসে (রিয়াল সোসিয়েদাদ থেকে উলভারহ্যাম্পটন)
ড্যানি ড্রিঙ্কওয়াটার (চেলসি থেকে কাসিমপাসা)
লুকা ইয়োভিচ (রিয়াল মাদ্রিদ থেকে আইনট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট)
মুসা দেম্বেলে (অলিম্পিক লিওঁ থেকে আতলেতিকো মাদ্রিদ)
তাকেফুসা কুবো (রিয়াল মাদ্রিদ থেকে হেতাফে)
কার্লেস আলেনিয়া (বার্সেলোনা থেকে হেতাফে)
রাজ্জা নাইনগোলান (ইন্টার মিলান থেকে ক্যালিয়ারি)

default-image

সম্পাদিত পূর্ণাঙ্গ চুক্তি:
হাল্ক (সাংহাই শেনহুয়া থেকে আতলেতিকো মিনেইরো, ফ্রি)
মাতেও মুসাক্কিও (এসি মিলান থেকে লাৎসিও, ফ্রি)
পাপু গোমেজ (আতালান্তা থেকে সেভিয়া, ৪.৫ মিলিয়ন পাউন্ড)
সকরাতিস পাপাস্থাতোপোলোস (আর্সেনাল থেকে অলিম্পিয়াকোস, ফ্রি)
ক্লাস-ইয়ান হুন্টেলার (আয়াক্স থেকে শালকে, ফ্রি)
জ্যাক উইলশেয়ার (ওয়েস্ট হাম থেকে বোর্নমাউথ, ফ্রি)
ক্রেপিন দিয়াত্তা (ক্লাব ব্রুজেস থেকে মোনাকো, ১১.৭ মিলিয়ন পাউন্ড)
মেসুত ওজিল (আর্সেনাল থেকে ফেনেরবাচে, ফ্রি)
সেবাস্তিয়েন আলের (ওয়েস্ট হাম থেকে আয়াক্স, ২০ মিলিয়ন পাউন্ড)
আমাদ দিয়ালো (আতালান্তা থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ১৮.৭ মিলিয়ন

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন