বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

মলিনার তোপে পড়েছেন বাঘা বাঘা একাধিক ক্লাব, কর্মকর্তা ও খেলোয়াড়। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই খেলোয়াড়দের নাম ঊহ্য রেখেছেন, কিন্তু ঊহ্য রেখেও যেসব ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন, তাতে ফুটবলপ্রেমী যেকোনো মানুষের খেলাটার প্রতি অশ্রদ্ধা চলে আসা স্বাভাবিক। যদিও প্রায় সব অভিযোগই প্রমাণিত নয়। তবু মলিনার লাইভে বিখ্যাত সাংবাদিক ফাব্রিজিও রোমানোর মন্তব্য, মলিনাকে নিয়ে জ্যাক লোয়ি, দি অ্যাথলেটিকের সাংবাদিক স্যাম স্ট্রিটের টুইট সাংবাদিক হিসেবে মলিনার বিশ্বাসযোগ্যতার দিকেই ইঙ্গিত করে।

কিন্তু কে এই মলিনা? আগে ভদ্রলোকের একটু পরিচয় দেওয়া যাক। ফ্রান্সের ক্রীড়াঙ্গনে এই মলিনাকে অন্যতম নির্ভরযোগ্য অনুসন্ধানী সাংবাদিক মানা হয়। স্পেনের আন্দালুসিয়ার এই সাংবাদিক বিবিসি, নিউইয়র্ক টাইমস, গার্ডিয়ান, সিএনএন, লে তেম্পসের হয়ে একাধিক অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করেছেন। ফুটবলবিষয়ক বেশ কয়েকটা বইয়ের রচয়িতা তিনি। ২০১৮ সালে হাইতির ফুটবল ফেডারেশনের তৎকালীন সভাপতি ইভিস জ্যাঁ-বার্টের বিরুদ্ধে শিশুকামিতা ও ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছিলেন, যে কারণে ফিফার নৈতিকতা কমিটি ৯০ দিনের জন্য বহিষ্কার করে জ্যাঁ-বার্টকে। সঙ্গে ১০ লাখ সুইস ফ্রাঁ-ও জরিমানা করা হয় তাঁকে।

সেই মলিনাই এবার একাধিক ফেডারেশন, কর্মকর্তা ও ক্লাবকে কাঠগড়ায় তুলেছেন। বোমা ফাটানো টুইটার লাইভের উল্লেখযোগ্য বিষয়গুলো দেখে নেওয়া যাক একনজরে—

default-image

ফারলাঁ মেন্দি

রিয়াল মাদ্রিদের ফরাসি লেফটব্যাক ফারলাঁ মেন্দির বিরুদ্ধে অভিযোগ সবচেয়ে ভয়াবহ। মলিনা জানিয়েছেন, এক নারীকে যৌন হেনস্তা করার পাশাপাশি তাঁকে বেশ বাজেভাবে শারীরিক নির্যাতন করেছেন মেন্দি। মাথায় লাথি মেরেছেন, যে কারণে সে নারীকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিতে হয়। বিশ্বের জনপ্রিয় দুটি সংবাদমাধ্যমকে খবরটা দিতে চেয়েছিলেন মলিনা, কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদের খেলোয়াড়কে নিয়ে এমন গুরুতর অভিযোগ প্রকাশ করতে রাজি হয়নি কেউই।

মলিনা আরও জানিয়েছেন, চূড়ান্ত মাত্রায় অ্যালকোহলে আসক্ত মেন্দি পারিবারিক জীবনেও অসুখী। মায়ের সঙ্গে তিন বছর ধরে কথা বলেন না। মেন্দির সাবেক ক্লাব লিওঁ জানত তাঁর এসব সমস্যার কথা। কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদের কাছে অধিক অর্থের বিনিময়ে এই খেলোয়াড়কে বিক্রি করার জন্য সেসব তথ্য ধামাচাপা রাখে লিওঁ। লিওঁতে যৌন নিগ্রহের অভিযোগও উঠেছিল তাঁর বিরুদ্ধে। ২০১৯ সালে ৫ কোটি ৩০ লাখ ইউরোর বিনিময়ে মেন্দি যখন লিওঁ থেকে রিয়ালে যোগ দেন, সেই অনুষ্ঠানে মেন্দির মা হাজির ছিলেন। ফলে মলিনার এই অভিযোগ কতটুকু সত্য, প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।

default-image

ফরাসি কোচের ধর্ষণ-কাণ্ড

এক আন্তর্জাতিক কোচ ১৩ বছর বয়সী দুই মেয়েশিশুকে ধর্ষণ করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়েন। তাঁর নিয়োগদাতা তাঁকে সঙ্গে সঙ্গেই ছাঁটাই করে চাকরি থেকে। ২০১৭ সালে ঘটনাটা ঘটেছিল। ব্যাপারটা মলিনাকে নাড়া দিয়েছিল; কারণ, সেই কোচ একজন ফরাসি ছিলেন। ওদিকে ফ্রান্স জাতীয় দলের এক খেলোয়াড় নৈশক্লাবে মলত্যাগের মাধ্যমে বিকৃত যৌনাচার করে সে ঘটনা আবার রেকর্ড করে রাখতেন।

কিলিয়ান এমবাপ্পে

এমবাপ্পের বাবা ক্যামেরুনের উইলফ্রায়েড ক্যামেরুনের নাগরিক, যে কারণে এমবাপ্পে চাইলে ক্যামেরুনের হয়েও খেলতে পারতেন। কিন্তু এমবাপ্পেকে ক্যামেরুন জাতীয় দলের হয়ে খেলানোর জন্য সে দেশের ফেডারেশন এমবাপ্পের বাবার কাছ থেকে ঘুষ চায়। ফলে ক্যামেরুনের হয়ে আর এমবাপ্পের খেলা হয়নি।

ম্যানচেস্টার সিটি

কিছুদিন আগে ফ্রান্সের হয়ে বিশ্বকাপজয়ী ডিফেন্ডার বেঞ্জামিন মেন্দির বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছিল। পুলিশ তাঁকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে রিমান্ডে নিয়েছিল। এদিকে তদন্ত চলাকালে তাঁকে সাসপেন্ড করেছিল সিটি। ২৭ বছর বয়সী এ খেলোয়াড়ের বিপক্ষে তিনজন ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছেন পুলিশের কাছে। এদিকে মলিনা জানিয়েছেন, এর চেয়েও বাজে কাজ করেছেন মেন্দি। ফরাসি এই লেফটব্যাক এমন কিছু করেছেন, যা ‘কল্পনাতীত’। বেঞ্জামিন মেন্দির কারণে এখন ফ্রান্সের খেলোয়াড় দলে আনার ব্যাপারে অনাগ্রহ দেখা যাচ্ছে সিটির মধ্যে।

default-image

ফিফা কার্যালয়ে ধর্ষণ

ফিফার আন্তর্জাতিক কেন্দ্রে এক অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়েকে ধর্ষণ করা হয়, পরে সেই মেয়ের গর্ভপাতও ঘটানো হয়। সে কথাও কেউ কখনো জানেনি।

করিম বেনজেমা

করিম বেনজেমাকে ফ্রান্সের জাতীয় দলে ফেরানোর জন্য সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখেছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাখোঁ। কোচ দিদিয়ের দেশম চাননি বেনজেমা দলে ফেরত আসুক।

মলিনার অভিযোগের ফিরিস্তি এখানেই শেষ হচ্ছে না। লাইভে নিজেই জানিয়েছেন, আগামী মার্চ-এপ্রিলে এসব অনাচারের আরও অনেক তথ্য ফাঁস করবেন সবার সামনে।

ফরাসি কোচদের আফ্রিকা গমন

ফরাসি ফুটবল ফেডারেশন চায়, দেশের কোচরা আফ্রিকায় গিয়ে চাকরি নিক। সাবেক ফরাসি ফুটবলার দিদিয়ের সিক্স এভাবেই গিনির চাকরি পেয়েছেন। সাবেক এই উইঙ্গার ২০১৯ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত গিনির কোচের দায়িত্বে ছিলেন।

আল–কায়েদা

সন্ত্রাসবাদী সংগঠন আল–কায়েদা ফুটবলের মাধ্যমে নতুন সদস্য নিয়োগ দেয়।

পিএসজি

পিএসজির খেলোয়াড়েরা এখন যেখানেই যান, সিসা নিয়ে যান। নেইমার-মেসিদের ক্লাব নিয়ে মলিনা আরও বলেন, ‘আমি চাইলেই পিএসজি আর নাসের আল খেলাইফিকে নিয়ে একটা আস্ত বই লিখতে পারি। ওদের অপরাধ আর খারাপ কাজ কেউ খালি চোখে দেখতে পায় না। একদিন কেউ না কেউ পিএসজি আর খেলাইফির অন্ধকার অধ্যায় সম্পর্কে জানতে পারবে। সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের সঙ্গেও পিএসজির যোগাযোগ আছে।’

default-image

মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রি

জুভেন্টাসের কোচ মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রি ইতালি থেকে সুইজারল্যান্ডে ‘মানি লন্ডারিং’ করছেন বহুদিন ধরে।

ম্যাচ পাতানো কাণ্ড

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, পূর্ব ইউরোপ, লাতিন আমেরিকা, আয়ারল্যান্ড, মাল্টা, জিব্রাল্টারের প্রায় সব প্রতিযোগিতাতেই ম্যাচ পাতানো হয়ে থাকে।

ফরাসি ক্লাবে শিশুকামিতা

ফরাসি লিগ আঁ-র এক ক্লাব শিশুকামিতার এক অভিযোগকে ধামাচাপা দিয়েছিল অনুশীলন কেন্দ্রের পরিচালকের মাধ্যমে। পুলিশ যখন ঘটনাস্থলে পৌঁছায়, ততক্ষণে সেই শিশুকে বুঝিয়ে-সুঝিয়ে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল। সে শিশুটি বিদেশি ছিল। শুধু তা–ই নয়, ফরাসি লিগ ও প্রিমিয়ার লিগের একাধিক তরুণ খেলোয়াড় ধর্ষণের শিকার, যে কারণে তাঁদের যৌনরোগও আছে।

মেগান রাপিনো

মাঠে যতটা, তার চেয়ে বেশি মাঠের বাইরের কর্মকাণ্ডের জন্য ব্যালন ডি’অর জয়ী নারী তারকা মেগান রাপিনোর নাম অধিক আসে সংবাদের শিরোনামে। কখনো যুক্তরাষ্ট্রের খেলাধুলায় ছেলেদের সমান বেতন ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধার দাবি তুলেছেন, তো কখনো আওয়াজ তুলেছেন বর্ণবাদ ও লিঙ্গবৈষম্যের বিরুদ্ধে। কিন্তু মলিনার মতে, সবকিছুই লোকদেখানো। মলিনা জানিয়েছেন, হাইতির মেয়ে খেলোয়াড়েরা ধর্ষণের শিকার হলে রাপিনোর কিচ্ছু যায় আসে না। তিনি শুধু টাকা উপার্জন করতে আগ্রহী।

default-image

কেনিয়া ফেডারেশনের অর্থলোভ

যেখানে অন্যান্য ফেডারেশনের একটি বা দুটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থাকে, কেনিয়া ফেডারেশনের আছে ১৬টি। প্রতিটি অ্যাকাউন্টই গোপনীয়।

বয়স ভাঁড়ানো

আফ্রিকার এক দেশের অনূর্ধ্ব-১৭ দলে খেলা এক খেলোয়াড়ের বয়স নিয়ে অভিযোগ তুলেছিল সেনেগাল। সে অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ওই আফ্রিকান দেশ (যে দেশের নাম মলিনা নেননি) কিছুদিন পর উক্ত খেলোয়াড়কে মৃত বলে ঘোষণা করে। সে খেলোয়াড় এখন একই দেশের অনূর্ধ্ব-২১ দলের হয়ে খেলে যাচ্ছেন।

কঙ্গোয় শিশুকামিতা

কঙ্গোর শহর কিনশাসায় এক ফুটবল একাডেমি পরিচালনার দায়িত্বে আছেন শিশুকামী মানুষজন।

default-image

অন্যান্য অভিযোগ

আফ্রিকার এক নারী দলে ছেলেদের খেলানো হতো। আফ্রিকান ফুটবলের একাধিক নামকরা খেলোয়াড় ও কর্মকর্তা নিজ নিজ ফেডারেশনের কাছ থেকে টাকা নিয়ে যৌনকর্মীদের পেছনে ব্যয় করেন। ওদিকে সাইপ্রিয়ট লিগের এক রেফারিকে বোমা হামলার মাধ্যমে খুন করার একটা পরিকল্পনা করা হয়েছিল, ম্যাচ পাতানো কাণ্ডের জের ধরে।

আর্সেনাল

আর্সেনালের খেলোয়াড়েরা ড্রেসিংরুমে নিয়মিত নেশা করে থাকেন, হিলিয়াম বেলুন সেবন করার মাধ্যমে।

হাকিম জিয়াশ

চেলসির মরোক্কান উইঙ্গার হাকিম জিয়াশ একবার বেনিনের এক ফুটবলারকে পিটিয়েছিলেন, কিন্তু আফ্রিকান ফুটবল ফেডারেশন সে তথ্য ধামাচাপা দিয়ে দেয়।

তবে মলিনার অভিযোগের ফিরিস্তি এখানেই শেষ হচ্ছে না। লাইভে নিজেই জানিয়েছেন, আগামী মার্চ-এপ্রিলে এসব অনাচারের আরও অনেক তথ্য ফাঁস করবেন সবার সামনে। বিখ্যাত সাংবাদিক ফাব্রিজিও রোমানো থেকে শুরু করে জনপ্রিয় হলিউড তারকা ও রেসলার ডোয়াইন জনসন, সাবেক সাউদাম্পটন উইঙ্গার সোফিয়ানে বুফল, রেনেঁর ফুলব্যাক হামারি ত্রায়োরে, লেঁসের স্ট্রাইকার ওয়েসলি সাইদ, ব্রেন্টফোর্ডের ফরোয়ার্ড ব্রায়ান এমবুয়েমো, মোনাকোর উইঙ্গার সোফিয়ানে দিওপ, অজেঁর মালিক সাইদ শাবানে—সবাই মলিনার লাইভটি সরাসরি শুনেছেন।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন