২০১৮ চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালে রামোসের ট্যাকলে সালাহর পড়ে যাওয়ার মুহূর্ত।
২০১৮ চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালে রামোসের ট্যাকলে সালাহর পড়ে যাওয়ার মুহূর্ত।ছবি: টুইটার

২০১৮ সালের চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালটা অনেক কিছুর জন্যই গুরুত্বপূর্ণ। ওই শিরোপার মাধ্যমেই রিয়াল মাদ্রিদ তাদের অবিশ্বাস্য হ্যাটট্রিক পূরণ করেছিল— চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের হ্যাটট্রিক। সে ম্যাচের পরই নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল, ক্লাব ছাড়ছেন ক্লাবের সর্বকালের সর্বসেরা খেলোয়াড় ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

কিন্তু এত কিছুর পরও ২০১৮ চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালটা মানুষ মনে রেখেছে সের্হিও রামোস ও মোহাম্মদ সালাহর সেই কাহিনির জন্যই। কোন সেই কাহিনি? ম্যাচ শুরুর কিছুক্ষণের মধ্যেই মোহাম্মদ সালাহকে খুব বাজেভাবে চ্যালেঞ্জ করেছিলেন রামোস।

চোটগ্রস্ত সালাহ পরে সেই ম্যাচটা খেলতেই পারেননি। সালাহকে হারানোর প্রভাব লিভারপুলের খেলার ওপর পড়েছিল। করিম বেনজেমার এক গোল আর গ্যারেথ বেলের জোড়া গোলে লিভারপুলের বিপক্ষে ৩-১ গোলে জিতেছিল রিয়াল।

বিজ্ঞাপন

সে ম্যাচের পরও ওই ঘটনার উত্তাপ কমেনি মোটেও। পরে বিভিন্ন সময়ে পাল্টাপাল্টি বিবৃতি দিয়েছিলেন লিভারপুলের কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ, স্ট্রাইকার রবার্তো ফিরমিনো, ডিফেন্ডার দেয়ান লভরেন, রামোস নিজেও।

তিন বছর পর আবারও চ্যাম্পিয়নস লিগের নকআউট পর্বে মুখোমুখি হচ্ছেন সালাহ আর রামোস। সালাহ এখন আগের চেয়ে আরও বেশি পরিণত, আরও ভালো খেলোয়াড়। ওদিকে রামোসের খেলার মানও পড়েনি মোটেও। দুজন যখন মাঠে নামবেন, ওই ঘটনার রেশ কি একটু হলেও থাকবে না দুজনের ওপর?

সালাহ অন্তত স্বীকার করছেন না সে ব্যাপারটা। মাদ্রিদভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মার্কাকে দেওয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে সালাহ জানিয়েছেন, অতীতের ঘটনাকে অতীতেই চাপা দিয়ে এসেছেন তিনি। সামনের ম্যাচে ভালো করাই তাঁর একমাত্র লক্ষ্য, ‘ওই ম্যাচটা এখন ইতিহাসের অংশ। অতীতে কী হয়েছে, সেটা ভেবে লাভ নেই। আমি আমার দল নিয়েই চিন্তা করছি, ওসব নিয়ে নয়। সবাই সবার দল নিয়েই ভাবছে, সবাই জিততে চায় এই ম্যাচটা।’

কোয়ার্টার ফাইনালে লিভারপুল রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে শোনার পর থেকেই ‘প্রতিশোধ’ শব্দটা ঘুরপাক খাচ্ছে সব জায়গায়। সালাহর মনের মধ্যেও কি ঘুরঘুর করছে?

সালাহ সে প্রশ্নেরও কোনো ‘উত্তেজক’ জবাব দিতে চাননি। আদর্শ ‘টিম ম্যান’–এর মতো ক্লাবের স্বার্থই দেখেছেন সবার আগে, ‘শুধু এটাই বলতে পারি, সেমিফাইনালে ওঠার জন্য আমাদের সবার মধ্যেই একটা বাড়তি অনুপ্রেরণা কাজ করবে। এই ম্যাচে যাই হোক না কেন, সেটা তো কিয়েভের ওই ম্যাচের ফল বদলাতে পারবে না, তাই না? তো ওই ম্যাচ নিয়ে ভেবে কি লাভ? ওটা এখন অতীতের অংশ। প্রতিশোধ নিয়ে ভাবছি না।’

রাউন্ড অব সিক্সটিনে লাইপজিগকে টপকে কোয়ার্টারে জায়গা করে নিয়েছে লিভারপুল। ওদিকে রিয়াল মাদ্রিদ কোয়ার্টারে উঠেছে আতালান্তাকে হারিয়ে। আগামী মাসের সাত তারিখে রিয়ালের মাঠ এস্তাদিও আলফ্রেদো দি স্তেফানোতে প্রথম লেগ খেলতে নামবে দুই দল। দ্বিতীয় লেগটা হবে লিভারপুলের মাঠ অ্যানফিল্ডে।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন