না, পোল্যান্ডের এই লেফটব্যাক আগেও যে রাশিয়ার কোনো ক্লাবে খেলতেন না, ব্যাপারটা তেমন নয়। চার বছর খেলেছেন তেরেক গ্রোজনিতে, পাঁচ বছর কাটিয়েছেন লোকোমোতিভ মস্কোয়। লোকোমোতিভের সঙ্গে এই মৌসুমেই তাঁর চুক্তি শেষ হয়েছে।

চুক্তি যেহেতু শেষই, সেহেতু নিজের পছন্দের যেকোনো ক্লাবেই নাম লেখাতে পারতেন। কিন্তু সে পছন্দটা যে রাশিয়ারই কোনো ক্লাব হবে, সেটা মানতে পারছেন না পোল্যান্ডের মানুষজন। হ্যাঁ, লোকোমোতিভের সঙ্গে চুক্তি শেষ হওয়া রাইবাস আবারও রাশিয়ার আরেক ক্লাবের সান্নিধ্যে গেছেন। এবার তাঁর ঠিকানা মস্কোরই আরেক ক্লাব—স্পার্তাক।

default-image

তাতে রাইবাসকে নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে পোল্যান্ডে। ইউক্রেনের পাশে দাঁড়ানো দেশটা এর মধ্যেই ৩৫ লাখ শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়েছে। গত মার্চে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের প্লে-অফের সেমিফাইনালে রাশিয়ার বিপক্ষে খেলতেও অস্বীকৃতি জানিয়েছিল পোল্যান্ড।

এতকিছুর পরেও যুদ্ধবাজ রাশিয়ার এক ক্লাবে নিজেদের কোনো খেলোয়াড় কেন নতুন করে খেলতে যাবেন, মানতেই পারছেন না পোলিশরা। এ তালিকায় দেশটার জাতীয় দলের কোচ জেস্লাও মিচনিউইজও রয়েছেন। মিচনিউজ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, রাশিয়ার ক্লাবে নাম লেখানোর জন্য আগামী বিশ্বকাপে পোল্যান্ডের জাতীয় দলে ডাকা হবে না রাইবাসকে। জাতীয় দলের হয়ে ৬৬ ম্যাচ খেলেছেন রাইবাস, মূল একাদশের অবিচ্ছেদ্য অংশ তিনি।

default-image

মিচনিউজের এই সিদ্ধান্তটা আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দিয়েছে পোল্যান্ডের ফুটবল সংস্থা, ‘গত সপ্তাহে জাতীয় দলের অনুশীলনের ক্যাম্পের পর পোল্যান্ড জাতীয় দলের কোচ জেস্লাও মিচনিউজ মাসিয়েজ রাইবাসের সঙ্গে কথা বলে নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিয়েছেন। জানিয়েছেন, রাইবাসের বর্তমান ক্লাব পরিস্থিতির কারণে আগামী বিশ্বকাপে তাঁকে দলে নেওয়া হবে না।’

কাতার বিশ্বকাপে গ্রুপ ‘সি’ তে সুযোগ পেয়েছে পোল্যান্ড। দেশটার গ্রুপসঙ্গী হিসেবে রয়েছে আর্জেন্টিনা মেক্সিকো ও সৌদি আরব। পোল্যান্ডের এই ‘শক্তিক্ষয়’ নিশ্চিতভাবেই আর্জেন্টিনার চিন্তা কমাবে!

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন