বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জোকোভিচ? না, নোভাক জোকোভিচ নন! করোনার টিকা নেওয়া, না–নেওয়া নিয়ে তৈরি নাটকের পর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলা নিয়ে শঙ্কা আছে সার্বিয়ান টেনিস তারকার, তবে তাতে টেনিসের ওপর বীতশ্রদ্ধ হয়ে ফুটবলে—রিয়াল মাদ্রিদে নাম লেখানোর মতো কিছু ঘটেনি।

এই নামে রিয়ালের মূল দলে কোনো খেলোয়াড় নেই। তবে জোকোভিচকে নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে যে বিতর্ক শুরু হয়েছে, তেমনই এক কাণ্ড করেছেন রিয়ালের এক খেলোয়াড়।

জোকোভিচ করোনার টিকা নেবেন না—এই পণ করে একরকম ‘যুদ্ধ’ই ঘোষণা করেছেন অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে। টিকা না নিয়ে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন খেলতে গিয়ে এখন হোটেলে আটক আছেন সার্বিয়ান তারকা। অস্ট্রেলিয়ার আদালতে তাঁর শুনানিও হবে।

টিকা না নিয়েও অস্ট্রেলিয়ায় পা রাখার মেডিকেল ছাড়পত্র জোকোভিচের সঙ্গে থাকলেও দেশটির কর্তৃপক্ষের মতে তা অপর্যাপ্ত হওয়ায় আটক হন।

না, রিয়ালের কেউ জোকোভিচের মতো ঘটনা এত দূর গড়াননি। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম এল লারগেরো জানিয়েছে, রিয়াল মাদ্রিদের এক খেলোয়াড় এখনো করোনার টিকা নেননি।

এদিকে স্প্যানিশ সুপার কাপ খেলতে রিয়াল সেই খেলোয়াড়কে নিয়ে সৌদি আরবে গেলে নিশ্চিতভাবেই ঝামেলায় পড়তে হবে। কারণ, ‘টিকা নেননি এমন কাউকে সুপার কাপে খেলার জন্য দেশে ঢুকতে দেবে না সৌদি আরব’—জানানো হয় সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে।

অর্থাৎ সেই খেলোয়াড়কে ছাড়াই সৌদি আরবে যেতে হবে রিয়ালকে। টিকা না নেওয়া সে খেলোয়াড়ের নাম প্রকাশ করা হয়নি। শুধু বলা হয়েছে, ‘নাম প্রকাশ করা হয়নি। তবে রিয়ালের এক খেলোয়াড় এখনো টিকা নেননি।’

রয়্যাল স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন (আরএফইএফ) ২০২৯ সাল পর্যন্ত সুপার কাপে চূড়ান্ত চার দলের খেলা সৌদি আরবে অনুষ্ঠিত করানোর বিষয়ে চুক্তিবদ্ধ। গত মৌসুমে লা লিগাজয়ী আতলেতিকো ও রানার্সআপ রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়াও কোপা দেল রে-জয়ী বার্সা ও রানার্সআপ বিলবাও এবারে টুর্নামেন্টে অংশ নেবে।

১৩ জানুয়ারি আতলেতিকোর মুখোমুখি হবে বিলবাও। দুই সেমিফাইনালে জয়ী দল ১৬ জানুয়ারি ফাইনালে একে অপরের মুখোমুখি হবে।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন