ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানো স্টেডিয়ামে কাল রাতে ‘মাদ্রিদ ডার্বি’তে রিয়াল মাদ্রিদকে আতিথ্য দিয়েছে আতলেতিকো মাদ্রিদ। আতিথ্য? কথাটা স্রেফ ভদ্রোচিত। মাঠের লড়াইয়ে তার লেশ ছিল কমই। যথেষ্ট উত্তেজনার এই ম্যাচে ১–০ গোলে জিতেছে আতলেতিকো।

তবে স্পেনের টিভি চ্যানেল ‘মুভিস্টার’–এর ক্যামেরায় দুর্ভাগ্যজনক এ ঘটনাটা ধরা পড়ার পর আলোচনায় সরগরম সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। স্পেনের সংবাদমাধ্যম ‘মার্কা’ জানিয়েছে, আতলেতিকোর স্টেডিয়াম ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানোয় ম্যাচটি দেখছিলেন এক বাবা ও ছেলে।

default-image

বাবার গায়ে রিয়ালের স্কার্ফ ও ছেলেটির গায়ে ছিল রিয়ালের জার্সি—ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর রিয়ালে খেলার সময়ের জার্সি। কিন্তু ম্যাচটা তাঁরা গ্যালারিতে বসে শেষ পর্যন্ত দেখতে পারেননি। গ্যালারি থেকে তাঁদের বের করে দেওয়া হয়েছে অপমান করে, জানিয়েছে মার্কা।

মুভিস্টারের ক্যামেরায় বাবা–ছেলেকে স্টেডিয়াম থেকে বের করে দেওয়ার দৃশ্যটা ধরা পড়ার পর ভিডিও থেকে কেটে নেওয়া ছবিতে সয়লাব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে, যেখানে তাঁরা বসে ছিলেন, সেখান থেকে তাঁদের উঠিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানোর দুজন নিরাপত্তাকর্মী। টিভি চ্যানেলটির ভিডিও দেখে মার্কা জানিয়েছে, রিয়ালের এই দুই সমর্থককে স্বাগতিক দলের কয়েক সমর্থক অপমানসূচক কথাও বলেছেন।

অশোভন ভাষায় গালাগালির পাশাপাশি ‘এখানে কোনো ভাইকিংসের জায়গা হবে না’ বলেও অপমান করা হয় সেই বাবা ও ছেলেকে।

default-image

আতলেতিকো মাদ্রিদের সমর্থকেরা সত্তর দশকে রিয়ালকে ‘ভাইকিংসদের দল’ বলে স্লেজিং করতেন। ৩৫ বছর রিয়ালের সভাপতির দায়িত্ব পালন করা এবং ক্লাবটির ইতিহাসে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি আখ্যা পাওয়া সান্তিয়াগো বার্নাব্যু তখন সভাপতি। আয়াক্স ও বায়ার্ন মিউনিখ তখন মহাদেশীয় ফুটবলে উত্তর ইউরোপের ফুটবলারদের খেলিয়ে সাফল্য তুলে নিচ্ছিল। সান্তিয়াগো বার্নাব্যুও ডেনিশ ও জার্মান ফুটবলারদের দলে ভিড়িয়ে সে পথে হেঁটেছিলেন।

জার্মানির হয়ে বিশ্বকাপজয়ী সাবেক মিডফিল্ডার পল ব্রেইটনার, গুন্তার নেৎজার এবং ডেনমার্কের সাবেক ফরোয়ার্ড হেনিং ইয়েনসেন ও জার্মানির সাবেক মিডফিল্ডার উলি স্টিলিকাদের নিয়ে আসেন সান্তিয়াগো বার্নাব্যু।

এদিকে সাগরের জলদস্যু ভাইকিংদের শিকড়ও স্ক্যান্ডিনেভিয়ানসহ উত্তর ইউরোপের অঞ্চলজুড়ে বিস্তৃত। নগর প্রতিদ্বন্দ্বীদের তখন তাই ‘ভাইকিংস’ তকমা দিয়েছিলেন আতলেতিকোর সমর্থকেরা, সেই স্লেজিংই কাল রাতে শুনতে হয়েছে রিয়ালের সমর্থক বাবা–ছেলেকে।

মার্কা জানিয়েছে, বাবা–ছেলেকে স্টেডিয়াম থেকে বের করে দেওয়ার এই ঘটনায় আতলেতিকোর সমর্থকদের মধ্যেই বাদানুবাদ লেগে গিয়েছিল। কেউ কেউ ব্যাপারটায় সমর্থন দিয়েছিলেন, কারও কারও আবার সেটা পছন্দ হয়নি। নিরাপত্তাকর্মীদের হস্তক্ষেপে পরে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন