default-image

ঘটনাটা ২০২১ সালের চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর। পারেদেস তখনো পিএসজিতেই ছিলেন, তবে মেসি তখনো বার্সেলোনার। শেষ ষোলোতে সেবার পিএসজির কাছে দুই লেগ মিলিয়ে ৫-২ গোলে হেরে বিদায় নেয় মেসির বার্সা। ক্যাম্প ন্যুতে প্রথম লেগে মেসির পেনাল্টিতে বার্সা এগিয়ে গেলেও শেষ পর্যন্ত কিলিয়ান এমবাপ্পের হ্যাটট্রিকে ৪-১ গোলে জেতে পিএসজি।

করোনার কারণে দর্শকবিহীন স্টেডিয়ামের সে ম্যাচেই এক পিএসজি–সতীর্থের কাছে মেসিকে নিয়ে উল্টোপাল্টা কিছু একটা বলে বসেন পারেদেস। কিন্তু মেসি সেটা শুনে ফেলেন। এরপর? মেসি এমনই কড়কানি দিয়েছেন যে পারেদেসের নাকি তখনই ইচ্ছা হচ্ছিল, সব ছেড়ে বাড়িতে চলে যেতে!

ক্লাবের মৌসুমের পর জাতীয় দলের ম্যাচগুলো খেলে আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়েরা এখন ছুটিতে। এর মধ্যে বেশির ভাগই ছুটি কাটাচ্ছেন আর্জেন্টিনায়। ব্যস, গত ১১ মাসে কোপা আমেরিকার পর লা ফিনালিসিমা জেতা আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়দের একের পর এক সাক্ষাৎকারের জন্য যেন জেঁকে ধরেছে সংবাদমাধ্যম।

আমাকে অনেক কিছু বলেছেন, এত খারাপ লেগেছে তখন। তিনি সে মুহূর্তে যেন আমাকে খুন করতে চেয়েছিলেন
মেসির রাগারাগি নিয়ে পারেদেস

একের পর এক সংবাদও আসছে সে কারণে। আজ পারেদেস বলছেন, তো কাল সাক্ষাৎকার প্রকাশিত হচ্ছে লেফটব্যাক নিকোলাস তাগলিয়াফিকোর। রদ্রিগো দি পল, পাপু গোমেজরাও এ নিয়ে কথা বলেছেন। কারও সাক্ষাৎকারে উঠে এসেছে মেসির প্রসঙ্গ, তো কারও কথায় কাতার বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার সম্ভাবনা।

পারেদেসের কাছে প্রশ্ন হলো মেসিকে নিয়ে। প্রায় দেড় বছর আগের সেই চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর দিনে কী এমন হয়েছিল যে আপাতশান্ত স্বভাবের মেসি এত খেপে গিয়েছিলেন? ‘তিনি এত রেগে গিয়েছিলেন! কারণ, আমি তাঁর সতীর্থদের উল্টোপাল্টা বলে খেপাচ্ছিলাম আর তিনি সেটা শুনে ফেলেন। ভীষণ রেগে যান’ - ব্যাখ্যা পারেদেসের।

রেগে যাওয়া মেসি কড়া কথা শুনে কেমন লেগেছিল পারেদেসের, সেটি পিএসজির আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার নিজেই জানিয়েছেন, ‘আমাকে অনেক কিছু বলেছেন, এত খারাপ লেগেছে তখন। তিনি সে মুহূর্তে যেন আমাকে খুন করতে চেয়েছিলেন!’

তবে মাঠের রাগটা মাঠেই ফেলে এসেছিলেন মেসি। পারেদেস তা-ই জানিয়েছেন, ‘তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন, তিনি কী সুন্দর মনের মানুষ! সম্পর্কটা এরপর আবার সহজই হয়েছে। এরপর জাতীয় দলে তাঁর সঙ্গে দেখা হয়েছিল। তাঁর আচরণ-কর্মকাণ্ড দেখে মনেই হচ্ছিল না যে কিছু একটা ঘটেছে।’

বরং সেদিনের সেই ঘটনাই এখন দুজনের হাস্যরসের বিষয় হয়ে গেছে বলে জানাচ্ছেন পারেদেস, ‘এখন যখন ওই বিষয়টা নিয়ে কথা হয়, আমরা কথা বলে হাসিতে ফেটে পড়ি। সে সময়ে অবশ্য তিনি খুবই রেগে গিয়েছিলেন!’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন