জুভেন্টাস তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।
জুভেন্টাস তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।ছবি: এএফপি

চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা জিততে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে নিয়ে এসেছে জুভেন্টাস। সে হিসেবে ইতালিয়ান ক্লাবটিতে এই তিন মৌসুমে রোনালদোকে ব্যর্থই বলা চলে। দুবার লিগ জিতলেও এ সময় চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালেও উঠতে পারেনি জুভেন্টাস।

এবার পোর্তোর কাছে হেরে জুভেন্টাস শেষ ষোলো থেকে ছিটকে পড়ার পর জোরেশোরেই শুরু হয়েছে রোনালদোর সমালোচনা। কেউ কেউ তো রোনালদোর শেষও দেখছেন। ইতালির সাবেক স্ট্রাইকার অ্যান্তনিও কাসানো অবশ্য এখনই ৩৫ বছর বয়সী তারকার শেষ দেখছেন না।

তবে পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডের খেলার সঙ্গে জুভেন্টাসের লক্ষ্যের মিল নেই বলে মনে করেন কাসানো। জুভেন্টাস খেলে দলীয় লক্ষ্য নিয়ে, কিন্তু রোনালদো স্বার্থপর, ব্যক্তিগত অর্জনই তাঁর লক্ষ্য—এমনটাই মনে করেন কাসানো।

বিজ্ঞাপন

মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রি জুভেন্টাসের কোচ থাকার সময়ে ২০১৮ সালে রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্টাসে যোগ দেন রোনালদো। রিয়ালেরই সাবেক স্ট্রাইকার কাসানোর মতে, রোনালদোর খেলার সঙ্গে মানিয়ে নিতে জুভেন্টাসের সব কোচেরই সমস্যা হয়েছে।

আলেগ্রির পর গত মৌসুমে জুভের কোচ ছিলেন মরিসিও সারি, এক মৌসুমের বেশি টিকতে পারেননি। এ মৌসুমে জুভেন্টাস কোচ করে নিয়ে এসেছে ক্লাবের কিংবদন্তি মিডফিল্ডার আন্দ্রেয়া পিরলোকে।

ইতালির সাবেক স্ট্রাইকার ক্রিস্টিয়ান ভিয়েরির ‘বোবো টিভি শো’–তে কাসানো এ নিয়ে বলেন, ‘জুভেন্টাস মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রির মতো কোচকেও ছেড়েছে, যিনি ২০–৩০ বছর ধরে ইতালিতে সেরা ফুটবল উপহার দিয়েছেন। তাঁর সবচেয়ে বড় সমস্যা ছিলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। মরিসিও সারি কিংবা আন্দ্রেয়া পিরলোরও একই সমস্যা। সারি গত বছর রোনালদোর সঙ্গে ভালো বোঝাপড়া করে খেলতে পারে, এমন কাউকে খুঁজে পাননি। এমন পরিস্থিতিতে কোচ পাল্টালেও বাধা হিসেবে রোনালদো তো থেকেই যায়।’

কাসানো সোজাসাপ্টাই বলেন, ‘কোনো ধাঁচের ফুটবল খেলার ক্ষেত্রে রোনালদো ভালো নয়। সে এমন একজন ফুটবলার যাকে বল দিলে গোল করবে, সব সময় নিজের রেকর্ড নিয়ে ভাবে। চার বছর আগে রোনালদো যেমন ছিল, এখন আর তেমন নেই।’

পিরলোর অক্ষমতাও তুলে ধরেছেন রোমা ও মিলান মাতানো কাসানো, ‘চ্যাম্পিয়নস লিগ জিততে তারা ওকে (রোনালদো) নিয়ে এসে ব্যর্থ হয়েছে। পিরলো কোচ হিসেবে নতুন, সংবাদমাধ্যমের সর্বোচ্চ মনোযোগ থাকে এমন কোনো তারকাকে নিয়ন্ত্রণের সামর্থ্য নেই পিরলোর। কারণ, এমন কেউ দলের জন্য সমস্যা হয়ে দাঁড়াতে পারে। রোনালদোর ভাবনায় শুধু তাঁর নিজের গোল ও রেকর্ড।’

সারির উদাহরণ টেনে ব্যাখ্যা করেন ৩৮ বছর বয়সী সাবেক এ স্ট্রাইকার, ‘সারি গত বছর সেরা ফুটবল উপহার দিতে গিয়ে ছাঁটাই হন। তার সমস্যা ছিলেন রোনালদো। এমন কোনো কোচ নেই যিনি রোনালদোকে দলে নিয়ে খেলতে ভালোবাসেন। নতুন করে কোনো কিছু শুরু করতে চাইলে নতুন কোচের অধীনে রোনালদোর মতো কাউকে দেওয়া উচিত নয়। সে পিরলোর জন্যও বাধা।’

জুভেন্টাস এবার চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে ছিটকে পড়ার পর রোনালদোকে ঘিরে ক্লাব ছাড়ার গুঞ্জন ভাসছে। শোনা যাচ্ছে, রিয়ালেও ফিরতে পারেন তিনি। সেখানে জিনেদিন জিদান অবশ্য কাসানোর সঙ্গে একমত হওয়ার কথা নয়। রোনালদোকে নিয়েই তো রিয়ালে টানা তিনটি চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছিলেন ‘জিজু’।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন