বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

৬৩ বছর বয়সী জার্মান কোচ অবশ্য কোচিংয়ের পাশাপাশি ক্লাবকে খোলনলচে বদলে দেওয়ার কাজেও বেশ দক্ষ। এ মুহূর্তে তিনি কোনো ক্লাবের কোচ নন, রাশিয়ার ক্লাব লোকোমোতিভ মস্কোর স্পোর্টস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট বিভাগের প্রধানের দায়িত্বে আছেন। দ্য অ্যাথলেটিকের পাশাপাশি রোমানোর দেওয়া খবর, ইউনাইটেড তাঁর সঙ্গে কথাবার্তায় অনেক দূর এগিয়ে গেছে। এখন লোকোমোতিভ মস্কোর ছাড়পত্রের অপেক্ষা।

দ্য অ্যাথলেটিক জানাচ্ছে, রাংনিকের সঙ্গে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের চুক্তি আপাতত অন্তর্বর্তীকালীন, এই মৌসুমের শেষ পর্যন্ত। তবে চুক্তিতে শর্ত অনুযায়ী এ মৌসুম শেষে ইউনাইটেডের ‘ফুটবল পরিচালনা’–সম্পর্কিত কোনো বড় দায়িত্ব পাবেন রাংনিক, যেখানে ক্লাবের খেলোয়াড় কেনা, কোচ নিয়োগসহ বড় বড় সিদ্ধান্তে রাংনিকের বড় ভূমিকা থাকবে।

খেলোয়াড়ি জীবনে তেমন কিছু করতে না পেরে ২৫ বছর বয়সেই কোচিংয়ে নামেন রাংনিক। স্টুটগার্ট, হফেনহাইম, শালকা, হানোভারের মতো জার্মান ক্লাবে কোচিং করিয়েছেন। সাফল্যের চেয়েও তাঁর কৌশলের খেল নজর কেড়েছে বেশি। বর্তমান লিভারপুলের কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ, চেলসির টমাস টুখেল এবং বায়ার্ন মিউনিখের ইউলিয়ান নাগলসমান যে কৌশলের জন্য বিখ্যাত, সেই ‘জেজেনপ্রেসিং’ কৌশলের আধুনিক যুগের কান্ডারি মানা হয় তাঁকে।

রাংনিক সবচেয়ে বেশি আলোচনায় এসেছেন আর বি লাইপজিগে তাঁর অবদানের কারণে। শক্তিবর্ধক পানীয় প্রস্তুতকারক কোম্পানি রেড বুল যখন রেড বুল সালজবুর্গ ও আর বি লাইপজিগের মালিকানা নিয়ে নেয়, তখন ২০১২ সালের জুনে দুটি ক্লাবেরই ফুটবল পরিচালক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় রাংনিককে।

তাঁর অধীন ২০১৮ সালের মধ্যে জার্মান ফুটবলের চতুর্থ স্তর থেকে শীর্ষ স্তর বুন্দেসলিগায় উঠে আসা লাইপজিগ চ্যাম্পিয়নস লিগেও খেলে। সালজবুর্গ তো অস্ট্রিয়ান লিগ শিরোপাই জেতে।

রাংনিক নিয়োগ পেলে ইউনাইটেডকে ঘিরে গুঞ্জনের শেষ হবে আরকি! কিছুদিন শোনা গেল জিনেদিন জিদানের নাম। রিয়াল মাদ্রিদে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে জুটি বেঁধে টানা তিনটি চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতিয়েছেন ফরাসি কিংবদন্তি। এখন সেই রোনালদোর সঙ্গেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে জুটি বাঁধবেন, এমন গুঞ্জন ছড়াতে সময় লাগেনি। কিন্তু জিদান নিজে ইউনাইটেডের কোচ হতে তেমন আগ্রহী নন বলে জানিয়েছে ফ্রান্স ও ইংল্যান্ডের অনেক সংবাদমাধ্যম, ফরাসি কিংবদন্তির স্ত্রীরও নাকি ম্যানচেস্টার শহরটা তেমন পছন্দ হয়নি।

এরপর গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল পিএসজির কোচ মরিসিও পচেত্তিনোকে নিয়ে। পিএসজিতে মেসি, নেইমার, এমবাপ্পে, রামোসদের সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন আর্জেন্টাইন কোচ, দলকে এখনো গুছিয়ে নিতে পারেননি। মৌসুমের মাঝপথেই মেসিদের ছেড়ে তিনি রোনালদোদের কোচ হতে চান, ওদিকে পিএসজি তাঁকে ছেড়ে দিয়ে জিদানকে কোচ হিসেবে পেতে চায়, এমন গুঞ্জন দু-তিন দিন ধরে বাজার পেয়েছে বেশ।

দৌড়ে শোনা গিয়েছিল লেস্টার সিটির ব্রেন্ডন রজার্স, বেলজিয়াম কোচ রবার্তো মার্তিনেজসহ অনেকের নাম। আবার বর্তমান অন্তর্বর্তীকালীন কোচ মাইকেল ক্যারিককে নিয়েই ম্যান ইউনাইটেডের আরও কিছুদিন চালিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনার কথাও ঠারেঠোরে এসেছে শিরোনামে।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত ক্লপদের কোচকেই ক্লপদের বিপরীতে দাঁড় করাচ্ছে ইউনাইটেড।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন