আগামী মৌসুমটা রোনালদোর জন্য হয়তো অন্য রকমই হতে যাচ্ছে। তাঁর টুর্নামেন্টে যে না–ও থাকতে পারেন তিনি! আগামী মৌসুমের চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলতে হলে শেষ চারে থেকে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ শেষ করতে হবে ম্যান ইউনাইটেডকে। কিন্তু এই মুহূর্তে ৩৫ ম্যাচে ৫৫ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে আছে তারা। চেলসি তৃতীয় স্থানে আছে ৬৬ পয়েন্ট নিয়ে, চতুর্থ স্থানে থাকা আর্সেনালের পয়েন্ট ৬০ আর টটেনহাম পঞ্চম স্থানে আছে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে। তিনটি দলই ইউনাইটেডের চেয়ে দুটি করে ম্যাচ কম খেলেছে।

default-image

ইউনাইটেডের ভারপ্রাপ্ত কোচ রালফ রাংনিক তো চারের মধ্যে থেকে লিগ শেষ করার আশা ছেড়েই দিয়েছেন। পয়েন্ট তালিকার দিকে তাকালে তাঁর চিন্তাকে বাস্তবসম্মতই বলতে হবে। গত বৃহস্পতিবার চেলসির সঙ্গে ১–১ গোলে ড্রর আগেই রাংনিক বলেছিলেন, ‘আমাদের বাস্তবতা মেনে নিতে হবে। এখন আমাদের যে কটি ম্যাচ আছে, সব কটি জিতলেও শেষ চারে থাকাটা নিজেদের হাতে থাকবে না।’

অথচ রোনালদো তাঁর সাধ্যমতো চেষ্টা করেছেন দলকে আগামী মৌসুমের চ্যাম্পিয়নস লিগে জায়গা করে দিতে। চেলসির বিপক্ষে ম্যাচের আগে ওল্ড ট্রাফোর্ডে লিগের সর্বশেষ দুই ম্যাচে দলকে জেতাতে হ্যাটট্রিক করেছেন তিনি। চেলসির সঙ্গে যে ইউনাইটেড অন্তত ১–১ গোলে ড্র করতে পারল, সেটাও রোনালদোরই কারণে। ইউনাইটেডকে সমতায় ফেরানো গোলটি তিনিই করেছেন।

default-image

চলতি মৌসুমে ইউনাইটেডের হয়ে ২৮ ম্যাচে লিগে ১৭ গোল করেছেন রোনালদো। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের চলতি মৌসুমে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনি। ২২ গোল নিয়ে মোহামেদ সালাহ আছেন তালিকার শীর্ষে। এবারের ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ইউনাইটেডের ৩০ শতাংশ গোল এসেছে রোনালদোর কাছ থেকে। ৩৭ বছর বয়সেও যা করছেন, সেটাকে অসাধারণই বলতে হবে।

কিন্তু অসাধারণ এই পারফরম্যান্সের পরও ‘নিজের টুর্নামেন্টে’ হয়তো থাকা হবে না রোনালদোর! তবে ইউনাইটেড চ্যাম্পিয়নস লিগে জায়গা না পেলে রোনালদো ওল্ড ট্রাফোর্ডে থাকবেন কি না, সেটা নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করছেন অনেকে। শেষ পর্যন্ত রোনালদো যদি ইউনাইটেডে না থাকেন, নাম লেখান চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলা কোনো দলে, তাহলে অবশ্য রোনালদোবিহীন চ্যাম্পিয়নস দেখতে হবে না তাঁর ভক্তদের।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন