বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

২০১৫ সালে মেসি-নেইমার-সুয়ারেজকে নিয়ে বার্সাকে তাঁদের ইতিহাসের সবশেষ ট্রেবল (এক মৌসুমে তিন শিরোপার তিনটিই) জিতিয়েছেন। সে কারণেই হয়তো প্রতিপক্ষ হিসেবে রোনালদোর সম্মান অর্জন করে নিয়েছিলেন এনরিকে। নয়তো ইউনাইটেডের কোচ হিসেবে এনরিকেকে কেন চাইবেন রোনালদো?


তবে রোনালদো চাইলেই তো আর হয় না, এনরিকের ইচ্ছেও থাকা দরকার। সে ইচ্ছেটা যে নেই, সেটা বোঝা গেছে স্প্যানিশ এই কোচের কথায়। রোনালদোর প্রস্তাব হেসেই উড়িয়ে দিয়েছেন এনরিকে।

default-image

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম লা সেক্সতার সঙ্গে আলাপে ম্যান ইউনাইটেডের কোচ হওয়ার প্রস্তাব নিয়ে একরকম ঠাট্টাই করেছেন এনরিকে, ‘আজ এপ্রিল ফুল দিবস নাকি? আমি স্পেনের সবচেয়ে বড় দলের কোচ। জাতীয় দলের। আমাদের এখানে পাঁচ হাজার খেলোয়াড় আছে, আমি যাকে খুশি তাকে ডাকতে পারি দলে। এর চেয়ে বড় আর কি হতে পারে? আমাদের উপভোগ করতে হবে বিষয়টা। আমি যেখানে আছি সেখানেই খুশি।’


এর আগে ইংল্যান্ডের গণমাধ্যম স্কাই স্পোর্টসের নির্ভরযোগ্য সাংবাদিক রব ডরসেট জানিয়েছিলেন রোনালদোর এনরিকে-প্রীতির কথা। স্পেনকে নিয়ে গত ইউরোর সেমিফাইনালে উঠেছেন এই কোচ।

default-image

গত সপ্তাহে সুইডেনকে হারিয়ে কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের অংশগ্রহণও নিশ্চিত করেছে ২০১০ সালের বিশ্বকাপজয়ী স্পেন।


এনরিকের আগে ইউনাইটেডের সম্ভাব্য কোচ হিসেবে শোনা গেছে জিনেদিন জিদানের কথা। জানা গেছে, ইউনাইটেডের সহসভাপতি জোয়েল গ্লেজার খুব করে চাইছেন জিদানকে। কিন্তু জিদান বা তাঁর স্ত্রী—কারও–ই ইংল্যান্ডে আসার আগ্রহ নেই বলে গুঞ্জন।


সুলশারের জায়গায় আপাতত ভারপ্রাপ্ত কোচ হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সহকারী কোচ মাইকেল ক্যারিককে। এককালে রোনালদোর সতীর্থ ছিলেন ক্যারিক।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন