এই দুই ‘অসুখী’ ফরোয়ার্ডের জন্য সুখের বার্তা নিয়ে এসেছে বায়ার্ন মিউনিখ। অন্তত স্প্যানিশ গণমাধ্যম এএসের পেদ্রো ইরানজোর দাবি এমনটাই। ইরানজোর প্রতিবেদন অনুযায়ী, বায়ার্ন নাকি লেভানডফস্কির সঙ্গে রোনালদোর অদলবদল করতে চাইছে। এমন প্রস্তাবে ইউনাইটেডেরও সায় আছে বলে ইরানজোর দাবি।

ম্যানচেস্টার সিটি আর্লিং হরলান্ডকে দলে টেনেছে, বসে নেই লিভারপুলও, দলে টেনেছে দারউইন নুনিয়েজকে। টটেনহাম-আর্সেনালও নিজেদের কৌশল অনুযায়ী ইভিস বিসুমা, ইভান পেরিসিচ, ফাবিও সিলভার মতো খেলোয়াড়দের নিয়ে এসেছে। তুলনামূলকভাবে ইউনাইটেডই খেলোয়াড় কেনাকাটায় এখনো নীরব।

default-image

ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ং থেকে শুরু করে ইউরিয়েন তিম্বার, আন্তোনি, লিসান্দ্রো মার্তিনেজের মতো একাধিক তরুণ প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের সঙ্গে ইউনাইটেডের নাম জড়ালেও কাউকে দলে টানার ব্যাপারে এখনো সফল হয়নি ইউনাইটেড। আর এটাই হয়েছে রোনালদোর বিরক্তির কারণ। যে কারণে আগামী মৌসুমে বায়ার্ন মিউনিখে নাম লিখিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে হাজির হওয়ার স্বপ্নটা এখনো মাটিচাপা দিচ্ছেন না রোনালদো। ইউনাইটেডের সঙ্গে চুক্তির এক বছর বাকি থাকলেও তাই এখনই ক্লাব ছাড়ার ব্যাপারটাও মাথায় রাখছেন।

ওদিকে লেভানডফস্কি পারলে বায়ার্নের কর্তাব্যক্তিদের সঙ্গে ‘যুদ্ধ’ করে হলেও ক্লাব ছাড়তে চান। আর তাঁকে পাওয়ার দৌড়ে সবচেয়ে এগিয়ে আছে বার্সেলোনা। কিন্তু এগিয়ে থাকলেও পোলিশ এই ফরোয়ার্ডের জন্য তারা এমন কোনো প্রস্তাব পাঠায়নি, যেটা দেখে বায়ার্ন লেভানডফস্কিকে বিক্রি করার ব্যাপারে গভীরভাবে চিন্তা করতে পারে। পোলিশ সাংবাদিক টমাস লোদারজিক জানিয়েছেন, গত রাতে লেভানডফস্কির জন্য সাড়ে তিন কোটি ইউরোর একটা প্রস্তাব পাঠিয়েছে বার্সা। সঙ্গে বিভিন্ন পারফরম্যান্স–সংক্রান্ত শর্তপূরণ সাপেক্ষে আরও ৫০ লাখ ইউরো আয়ের সুযোগও থাকছে বায়ার্নের সামনে।

কিন্তু বায়ার্নবিষয়ক সাংবাদিকদের খবর, বার্সার এই প্রস্তাবটাও পছন্দ হয়নি বায়ার্নের। লেভানডফস্কির জন্য ৫ কোটি ইউরোর এক পয়সাও কম নিতে রাজি নয় তারা। আর এই অর্থের পুরোটুকুই একেবারে চায় বায়ার্ন। কারণ পরবর্তী সময় বিভিন্ন বোনাসের নামে টাকা পরিশোধ করার কথা বলে বার্সেলোনা আদৌ সে টাকা পরিশোধ করতে পারে কি না, সে নিয়ে সংশয় আছে বাভারিয়ানদের—এমনটাই জানিয়েছেন বায়ার্নবিষয়ক নির্ভরযোগ্য সাংবাদিক ম্যানুয়েল ভেথ।

ওদিকে রোনালদো-লেভানডফস্কি অদলবদলের ব্যাপারে পেদ্রো ইরানজোর খবরটা উড়িয়ে দিয়েছেন আরেক বুন্দেসলিগাবিষয়ক সাংবাদিক রোনান মারফি। তিনি জানিয়েছেন, লেভানডফস্কির জায়গায় রোনালদোকে আনার কোনো ইচ্ছাই নেই বায়ার্নের।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন