পর্তুগিজ ম্যানেজার জোসে মরিনিও।
পর্তুগিজ ম্যানেজার জোসে মরিনিও।ছবি: টুইটার

এএস রোমা ইতালিয়ান ও ইউরোপিয়ান ফুটবলে সমীহজাগানিয়া দল। কিন্তু সিরি ‘আ’–তে এ মৌসুমে ভালো করতে পারেনি। হাতে চার ম্যাচ রেখে লিগ টেবিলের সাতে রয়েছে রোমা। চ্যাম্পিয়নস লিগেও এবার জায়গা করে নিতে পারেনি রোমা।

অথচ ২০১৯ সালে পর্তুগিজ কোচ পাওলো ফনসেকাকে দায়িত্ব দিয়ে সাফল্যের পথে ফিরতে চেয়েছিল ক্লাবটি। কিন্তু আশানুরূপ ফল না পাওয়ায় মঙ্গলবার ক্লাবটি জানিয়ে দেয়, চলতি মৌসুম শেষেই কোচের দায়িত্ব ছাড়বেন ফনসেকা।

এই শূন্যতা পূরণেও দেরি করল না রোমা। ফনসেকার জায়গায় জোসে মরিনিওকে নতুন কোচ হিসেবে বেছে নিয়েছে ২০০৭–০৮ মৌসুমে ইতালিয়ান ফুটবলে সর্বশেষ কোনো ট্রফিজয়ী রোমা।

বিজ্ঞাপন

ইতালিয়ান ক্লাবটি এ নিয়ে টুইট করেছে, ‘এএস রোমা আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছে, ২০২১–২২ মৌসুম থেকে দলের কোচ হবেন জোসে মরিনিও।’

গত ১৯ এপ্রিল ইউরোপিয়ান সুপার লিগ নিয়ে বিতর্ক চলার মধ্যেই মরিনিওকে কোচের পদ থেকে ছাঁটাই করে টটেনহাম। চারটি দেশের শীর্ষস্থানীয় লিগ শিরোপা জয়ের অভিজ্ঞতায় ঋদ্ধ ৫৮ বছর বয়সী মরিনিও তখন বলেছিলেন, ফুটবলে ফেরার অপেক্ষা করবেন।

২০২১–২২ মৌসুম থেকে রোমার দায়িত্ব নেবেন মরিনিও। দীর্ঘ ১১ বছর পর ইতালিয়ান ফুটবলে ফিরছেন তিনি। ২০০৮ সালে ইন্টার মিলানের দায়িত্ব নিয়ে দুই বছর ক্লাবটিতে ছিলেন মরিনিও। দুইবার সিরি ‘আ’ জেতার সঙ্গে ২০১০ সালে সান সিরোর ক্লাবটিকে ‘ট্রেবল’ জিতিয়েছিলেন ‘স্পেশাল ওয়ান’খ্যাত এ কোচ। সেটা ছিল কোনো ইতালিয়ান ক্লাবের প্রথম ট্রেবল জয়।

দুটি আলাদা ক্লাবের হয়ে ইউরোপসেরার মুকুট জয়ের নজির গড়া পাঁচ কোচের একজন মরিনিওর সঙ্গে রোমার চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে ২০২৪ সালের জুন মাসে। অর্থাৎ তিন বছরের চুক্তি করেছেন মরিনিও।

লিগে সপ্তম স্থান থেকে এবার আর উঠে আসার তেমন সুযোগ নেই রোমার। বৃহস্পতিবার ইউরোপা লিগ সেমিফাইনাল ফিরতি লেগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মুখোমুখি হবে ক্লাবটি। প্রথম লেগেই ৬–২ ব্যবধানে পিছিয়ে আছে রোমা।

মরিনিওকে নিয়ে আসা প্রসঙ্গে রোমার সভাপতি ড্যান ফ্রেডকিন ও সহসভাপতি রায়ান ফ্রেডকিন বলেন, ‘এএস রোমা পরিবারে জোসে মরিনিওকে স্বাগত জানাতে পেরে আমরা আনন্দিত। তিনি একজন অসাধারণ চ্যাম্পিয়ন, যিনি সব পর্যায়েই শিরোপা জিতেছেন। টেকসই এবং ধারাবাহিক জয়ের সংস্কৃতি গড়ে তুলতে মরিনিওকে নিয়ে আসতে পারাটা অনেক বড় একটা ধাপ।’

২০১৯ সালে দায়িত্ব নেওয়ার পর টটেনহামের হয়ে কিছু জিততে পারেননি মরিনিও। ১৭ মাস ক্লাবটির দায়িত্বে থাকার পর এই মৌসুমের দ্বিতীয় ভাগে ভালো করতে পারেননি। লিগ টেবিলের শীর্ষ স্থান থেকে শীর্ষ চারের বাইরে ছিটকে পড়ে টটেনহাম। গোটা কোচিং ক্যারিয়ারে এবারই প্রথমবারের মতো লিগে ১০ ম্যাচ হারের মুখ দেখেছিলেন মরিনিও।

বিজ্ঞাপন

রোমার দায়িত্ব নেওয়া প্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমকে মরিনিও বলেন, ‘মালিকপক্ষের সঙ্গে কথা বলার পর তাদের পরিকল্পনাটা বিশদ বুঝতে পারি। এ ধরনের চ্যালেঞ্জই আমাকে সব সময় প্রেরণা জুগিয়েছে। আমরা একটা জয়ের প্রকল্প গড়ে তুলতে চাই। ক্লাবের প্রতি রোমাসমর্থকদের ভালোবাসা আমার আগ্রহ বাড়িয়েছে, আগামী মৌসুম থেকে দায়িত্ব নিতে আর তর সইছে না।’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন