বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ফ্রেঞ্চ লিগ আঁ-তে কাল রাতে লোরিয়াঁর বিপক্ষে মাঠে নেমেছিলেন রামোস। পিএসজির হয়ে এটি ছিল তাঁর দ্বিতীয় ম্যাচ। নুনো মেন্দেজের বদলি হয়ে নামলেন ৪৬ মিনিটে।

৮১ মিনিটে দেখলেন প্রথম হলুদ কার্ড, এরপর ৮৬ মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড অর্থাৎ লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন পিএসজি তারকা। ৯১ মিনিটে মাউরো ইকার্দি গোল না করলে ১-০ ব্যবধানের হার নিয়ে প্রতিপক্ষের মাঠ থেকে ফিরতে হতো পিএসজিকে। আশরাফ হাকিমির ক্রস থেকে ইকার্দি গোলটি করায় ১-১ ব্যবধানের ড্রয়ে অন্তত পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়তে পেরেছে মরিসিও পচেত্তিনোর দল।

default-image

পয়েন্ট টেবিলে ১৯তম লোরিয়াঁ টমাস মনকনদুইতের শট থেকে করা গোলে ৪০ মিনিটে এগিয়ে যায়। দ্বিতীয়ার্ধে লিওনেল মেসি ও আনহেল দি মারিয়া দুটি গোলের সুযোগ পেয়েছিলেন। কাজে লাগাতে পারেননি।

বদলি হয়ে নামা রামোস ৮১ মিনিটে বিপৎসীমার ওপর বুট তুলে ফেলায় দেখেন দ্বিতীয় হলুদ কার্ড। এর ৫ মিনিট পরই লোরিয়াঁর তেরেম মফিকে ফাউল করে ক্যারিয়ারের ২৭তম লাল কার্ড দেখেন রামোস।

পিএসজির জার্সিতে লিগে দুই ম্যাচ মিলিয়ে এ পর্যন্ত ১৩০ মিনিট খেলেই প্রথম লাল কার্ড দেখলেন রামোস। তাঁর ২৭ লাল কার্ডের মধ্যে ২০টি লা লিগায়, ৫টি চ্যাম্পিয়নস লিগে, ১টি সুপার কোপা দে এসপানায় এবং অন্যটি কাল লিগ আঁ-তে।

চোটসমস্যায় পিএসজির হয়ে নিয়মিত খেলতে পারেননি রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক এ ডিফেন্ডার। ১৯ ম্যাচে ৪৬ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে পিএসজি। লেঁসকে ২-১ গোলে হারানো নিস ১৯ ম্যাচে ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে। ১৮ ম্যাচে নিসের সমান পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় মার্শেই ১-১ গোলে ড্র করে রিমের বিপক্ষে।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন