default-image

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে যারা চোখ রাখেন তারা লিভারপুল-ম্যানচেস্টার সিটির জমজমাট এক ম্যাচ উপভোগ করেছেন নিশ্চিত। অবশ্য অ্যানফিল্ডে লড়াইয়ের শেষে জয় হয়েছে স্বাগতিকদেরই। সিটির বিপক্ষে লিভারপুল ম্যাচটি জিতেছে ৩-১ গোলের ব্যবধানে। 

ইপিএলে এই মৌসুমে এখন পর্যন্ত পরাজয়ের তেতো স্বাদ নেয়নি ক্লপের শিষ্যরা। এ জয়ে চলিত মৌসুমে ১২ ম্যাচে ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষস্থান আরও মজবুত করল ইংলিশ জায়ান্টরা। সমান ২৬ পয়েন্ট নিয়ে দুই ও তিন নম্বরে আছে যথাক্রমে লেস্টার সিটি ও চেলসি। ২৫ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলে ম্যানসিটির অবস্থা চারে।

খেলার শুরু থেকেই বলের দখলে এগিয়ে ছিল ম্যানসিটি। কিন্তু গোলমুখে নেওয়া লিভারপুলের প্রথম দুটি শটই জালে জড়ায়। ফাবিনহো আর সালাহর ৭ মিনিটের ব্যবধানে করা দুই গোলে প্রথমার্ধেই ২-০ স্কোরলাইনে এগিয়ে থেকে মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকেরা।

ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটে অতিথিদের বুকে প্রথম ছুরি চালান ফাবিনহো। ২৫ গজ দূর থেকে নেওয়া ব্রাজিলিয়ান এই মিডফিল্ডারের শট আটকানোর কোনো উপায়ই ছিল না সিটি গোলরক্ষক ব্রাভোর কাছে। ম্যাচের শুরুতেই গোল হজম করে রীতিমতো ভ্যাবাচেকা খেয়ে যায় ম্যানসিটি। ঘুরে দাঁড়িয়ে গোল পরিশোধ করার আগেই দ্বিতীয় আঘাতটি করেন সালাহ। ১৩তম মিনিটে রবার্টসনের হাওয়ায় ভাসানো বলে মাথা ছুঁয়ে জালে জড়ান লিভারপুলের মিসরীয় এই তারকা।

দ্বিতীয়ার্ধেও একই দশা সিটির। ব্যবধান কমাতে গিয়ে উল্টো গোল হজম করে বসে তারা। ৫১ মিনিটে হেন্ডারসনের ক্রস থেকে হেডে বল জালে জড়ান লিভারপুলের সেনেগালের ফরোয়ার্ড মানে। শেষ পর্যন্ত বার্নারদো সিলভার গোলে খানিকটা হলেও আশা জিইয়ে রাখে সিটি। ম্যাচের ৭৮তম মিনিটে ডি বক্সের ভেতর অ্যানহেলিনোর বাড়ানো বল নিখুঁত শটে জালে জড়ান সিলভা। এরপর বেশ কয়বার সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয় গার্দিওলার শিষ্যরা। শেষ পর্যন্ত সিলভার ওই ১ গোলই সান্ত্বনা হয়ে থাকে সিটির কাছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0