default-image

ম্যানসিটির কোচ পেপ গার্দিওলা কথাটা কিছুদিন আগেও বলেছেন। চ্যাম্পিয়নস লিগের চেয়ে সিটির কাছে ঘরোয়া লিগের মূল্য বেশি। যত যাই বলুন না কেন, নতুন মালিকানা পাওয়ার পর সিটি একাধিকবার লিগ জিতলেও, চ্যাম্পিয়নস লিগটা দূর আকাশের তারা হয়েই আছে। নতুন মালিকানা আসার পর এই নিয়ে নবমবারের মতো চ্যাম্পিয়নস লিগ খেলতে গিয়েছে ক্লাবটা। নবমবারের চেষ্টায় তারা আদৌ সফল হবে কি হবে না, সেটা বোঝা যাবে আগামী মে মাসে। আপাতত সে লক্ষ্যে শুভসূচনাই করেছে গার্দিওলার দল। শাখতার দোনেতস্কের মাঠে গিয়ে তাদের ৩-০ গোলে হারিয়ে এসেছে গার্দিওলার দল।

বেশ কয়েক দিন ধরেই রক্ষণভাগের সমস্যায় জর্জরিত ম্যানচেস্টার সিটি। দলের মূল দুই সেন্টারব্যাক জন স্টোনস ও আয়মেরিক লাপোর্তে চোটে আক্রান্ত। এর মধ্যেই দ্বিতীয় সারির রক্ষণভাগ নামানোর খেসারত দিয়েছেন গার্দিওলা, গত সপ্তাহে। নরউইচ সিটির কাছে লিগে ৩-২ গোলে হেরে এসেছে তারা। গতকালও সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার ফার্নান্দিনহোকে সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার বানিয়ে দল সাজিয়েছিলেন গার্দিওলা। তবে সিটির ভাঙাচোরা এই রক্ষণভাগের পরীক্ষা নিতে পারল কই শাখতার? সিটির বিশ্বমানের আক্রমণভাগের সামনে স্রেফ উড়ে গেছে ইউক্রেনের দলটা।

ম্যাচের ২৪ মিনিটে জার্মান মিডফিল্ডার ইলকায় গুন্দোগানের সহায়তায় গোল করেন আলজেরিয়ার উইঙ্গার রিয়াদ মাহরেজ। তার চৌদ্দ মিনিট পর মাহরেজ ভাবলেন, গুন্দোগানের 'ঋণ' শোধ করা যাক। ৩৮ মিনিটে এবার গোলদাতার ভূমিকায় গুন্দোগান, সহায়তাকারী মাহরেজ। লিগে সিটির হয়ে তেমন সুযোগ না পেলেও চ্যাম্পিয়নস লিগে মাহরেজ যে পেপ গার্দিওলার কত বড় অস্ত্র, সেটা তিনি প্রমাণ করছেন বারবার। এই নিয়ে সিটির জার্সি গায়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে সাত ম্যাচ খেলে ফেলেছেন মাহরেজ, দুই গোলের পাশাপাশি সহায়তা করেছেন চারটি গোলে। ৭৬ মিনিটে বেলজিয়ান তারকা কেভিন ডি ব্রুইনিয়ার সহায়তায় ম্যাচের তৃতীয় ও শেষ গোলটি করেন ব্রাজিল স্ট্রাইকার গ্যাব্রিয়েল জেসুস।

এই নিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে ম্যানচেস্টার সিটির সঙ্গে পাঁচ বারের দেখায় মোট ১৪টি গোল খেল শাখতার। অন্য কোনো প্রতিপক্ষের কাছে চ্যাম্পিয়নস লিগে এত বেশি গোল খায়নি দলটি। ওদিকে ২০১৬-১৭ মৌসুম শুরুর পর থেকে রিয়াল মাদ্রিদ আর বায়ার্ন মিউনিখ বাদে ম্যানচেস্টার সিটির চেয়ে বেশি গোল কোনো ক্লাব দেয়নি চ্যাম্পিয়নস লিগে। এসব ইতিবাচক রেকর্ডগুলো শেষমেশ গার্দিওলার হাতে পরম আরাধ্য চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপাটা এনে দিলেই হয় এখন!

ওদিকে গ্রিক ক্লাব অলিম্পিয়াকোসের মাঠে গিয়ে ম্যাচের তিরিশ মিনিটের মধ্যে ২-০ গোলে এগিয়ে থেকেও পরে ড্র করেছে আরেক ইংলিশ ক্লাব, গতবারের ফাইনালিস্ট - টটেনহাম হটস্পার। ২৬ মিনিটে দলের হয়ে প্রথম গোল করেন স্পার্সের অধিনায়ক হ্যারি কেন। ৩০ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ব্রাজিল তারকা লুকাস মউরা। কিন্তু পরে ড্যানিয়েল পডেন্সে ও ম্যাথিউ ভালবুয়েনার গোলে সমতা নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় দুই দলকে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0