default-image

টেস্ট অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা ক্যারি তো সুযোগ পেয়ে মহাখুশি। প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে তিনি বলেছেন, ‘এমন একটি সুযোগ পেয়ে আমি যারপরনাই খুশি।’ ২০১৭ সালে ক্রিকেট তাসমানিয়ার এক নারী কর্মীকে অশ্লীল বার্তা ও ছবি পাঠানোর বিতর্কের জেরে নেতৃত্ব ছেড়ে দেওয়ার পাশাপাশি অনির্দিষ্টকালের জন্য সব ধরনের ক্রিকেট থেকেও সরে দাঁড়িয়েছেন পেইন। তাঁর এভাবে সরে দাঁড়ানোর কারণেই সুযোগটা পেয়েছেন ক্যারি।

নিজের এমন আনন্দের দিনে পেইনকে ভোলেননি ক্যারি, ‘আমরা সবাই জানি, এই মুহূর্তে কত কী হচ্ছে। প্রথমেই আমি টিম আর তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাতে চাই। আশা করছি, শিগগিরই আমরা আবার তাকে ক্রিকেটে ফিরে পাব। আসলে আমাদের পুরো দলই টিম আর তার পরিবারের পাশে আছে।’

default-image

সংযুক্ত আরব আমিরাতে এ বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়া অস্ট্রেলিয়া দলে ছিলেন না ক্যারি। তাঁর জায়গায় ম্যাথু ওয়েডের সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেটকিপার হিসেবে ইংলিশকে রেখেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার নির্বাচকেরা। ইংলিশ অবশ্য বিশ্বকাপে একটিও ম্যাচ খেলেননি। অন্যদিকে, বিশ্বকাপের ওই সময়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে বেশ কিছু ম্যাচ খেলে ভালো পারফর্ম করে নির্বাচকদের নজর কেড়েছেন ক্যারি। এখন তিনি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দল থেকে বাদ পড়ার কথা যেন ভুলেই গেছেন, ‘(টেস্ট দলে) ডাক পেয়ে আমি খুবই রোমাঞ্চিত। শৈশবের একটি স্বপ্ন পূরণ হলো আমার।’

ক্যারিকে দলে রাখার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাচক জর্জ বেইলি বলেছেন, ‘সাদা বলের ক্রিকেটে ক্যারি অস্ট্রেলিয়া দলের নিয়মিত সদস্য; বিশেষ করে ওয়ানডে দলে। সে অসাধারণ এক ক্রিকেটার এবং ব্যক্তি হিসেবে খুব ভালো। সে দলের শক্তি অনেক বাড়িয়ে দেবে।’

অ্যাশেজের প্রথম দুই টেস্টের দল

প্যাট কামিন্স (অধিনায়ক), অ্যালেক্স ক্যারি, ক্যামেরন গ্রিন, মার্কাস হ্যারিস, জশ হ্যাজলউড, ট্রাভিস হেড, উসমান খাজা, মারনাস লাবুশেন, নাথান লায়ন, মাইকেল নেসের, ঝাই রিচার্ডসন, স্টিভ স্মিথ, মিচল স্টার্ক, মিচেল সোয়েপসন, ডেভিড ওয়ার্নার।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন