বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ইংল্যান্ডের বয়সভিত্তিক দলের ধাপ পাড়ি দিয়ে বেলিংহাম জাতীয় দলে ডাক পান গত বছর। সেখানেও ‘অভ্যাস’ পাল্টাতে পারলেন না। ওয়েন রুনি ও থিও ওয়ালকটের পর ইংল্যান্ডের তৃতীয় সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে অভিষিক্ত হন ১৭ বছর ১৩৬ বয়সে।

গত ইউরোয় ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ইংল্যান্ডের বদলি খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে নামার সময় বেলিংহামের বয়স ছিল ১৭ বছর ৩৪৯ দিন। এর মধ্য দিয়ে ইংল্যান্ডের সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে বড় কোনো টুর্নামেন্টে খেলার রেকর্ড গড়েন। পাশাপাশি ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপেও সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে নামার রেকর্ড গড়েন। যদিও ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে সে ম্যাচের ছয় দিন পর ইউরোর রেকর্ডটি নিজের করে নেন পোল্যান্ডের কাসপার কোজলোজস্কি।

default-image

চ্যাম্পিয়নস লিগে কাল রাতে বেসিকতাস-ডর্টমুন্ড ম্যাচেও সর্বকনিষ্ঠ হিসেবে একটি রেকর্ড গড়েছেন বেলিংহাম। ডর্টমুন্ডের ২-১ গোলে জয়ের ম্যাচে প্রথম গোলটি বেলিংহামের। এর মধ্য দিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় (১৮ বছর ৭৮ দিন) হিসেবে অন্তত টানা দুই ম্যাচে গোলের রেকর্ড গড়লেন ইংলিশ মিডফিল্ডার।

এর আগে গত মৌসুমে কোয়ার্টার ফাইনাল ফিরতি লেগে ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে মাঠে নেমে গোল করেছিলেন তিনি। দুই লেগ মিলিয়ে পরে ৪-২ ব্যবধানের জয় পেয়েছিল ম্যানচেস্টার সিটি।

বেলিংহাম এই রেকর্ড গড়তে পেছনে ফেললেন পিএসজি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পেকে। ২০১৭ সালের মার্চে মোনাকোর হয়ে ১৮ বছর ৮৫ দিন বয়সে রেকর্ডটি গড়েছিলেন ফরাসি তারকা। ৭ দিন কম বয়স নিয়ে সেই রেকর্ড নিজের করে নিলেন বেলিংহাম। ম্যাচটা বেসিকতাসের মাঠে হওয়ায় সর্বকনিষ্ঠ হিসেবে আরও একটি রেকর্ড গড়েছেন তিনি।

চ্যাম্পিয়নস লিগে ইংল্যান্ডের সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে গোলের রেকর্ড গড়েছেন প্রতিপক্ষের মাঠে। এর আগে রেকর্ডটি ছিল ট্রেন্ট আলেক্সান্দার-আর্নল্ডের। ২০১৭ সালে ১৯ বছর ১০ দিন বয়সে মারিবোরের মাঠে কীর্তিটি গড়েছিলেন তিনি।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন