আন্দ্রেয়া আনেয়েল্লি
আন্দ্রেয়া আনেয়েল্লিছবি : রয়টার্স

৪৮ ঘণ্টা শেষ হতে না হতেই মোহভঙ্গ হলো ইউরোপিয়ান সুপার লিগের কর্তাব্যক্তিদের। লিগের সহসভাপতি, জুভেন্টাসের সভাপতি আন্দ্রেয়া আনেয়েল্লি জানিয়েছেন, সুপার লিগের আয়োজন করা সম্ভব নয়।

ইউরোপিয়ান সুপার লিগ নামের দুর্গে ফাটল দেখা দিয়েছিল গত রাত থেকেই। সমর্থকদের নিরন্তর সমালোচনা ও বিক্ষোভের মুখে নতি স্বীকার করতে বাধ্য হয় ইংল্যান্ড থেকে সুপার লিগে যাওয়া ছয় ক্লাব। আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দিয়ে সরে দাঁড়ায় তারা। লিভারপুলের মালিক জন ডব্লিউ হেনরি আবার ভিডিও বার্তায় দলের সমর্থকদের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমাও চেয়েছেন আজ, যিনি নিজেও সুপার লিগের ভাইস চেয়ারম্যানের দায়িত্বে ছিলেন। বারো ক্লাবের মধ্যে ছয় ক্লাবই যদি না থাকে, লিগ চলে কী করে? কঠিন বাস্তবতা তাই মেনে নিয়েছেন লিগের আরেক সহসভাপতি আনেয়েল্লি।

বিজ্ঞাপন

রয়টার্সকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মোটামুটি সুপার লিগের ‘মৃত্যুর’ কথাই ঘোষণা করে দিয়েছেন আনেয়েল্লি। ছয় ক্লাবের পিছু হটার পর এ লিগের আয়োজন করা হবে কি না, এই প্রশ্নের জবাবে আনেয়েল্লি জানিয়েছেন, ‘সত্যি কথা বলতে, খোলাখুলিভাবে বললে, না। বর্তমান পরিস্থিতিতে এভাবে আয়োজন করা সম্ভব নয়।’

এদিকে ইংল্যান্ডের লিভারপুল, চেলসি, ম্যানচেস্টার সিটি, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, আর্সেনাল ও টটেনহামের পাশাপাশি স্পেনের আতলেতিকো মাদ্রিদ আর ইতালির ইন্টার মিলানও আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দিয়েছে, এ উদ্যোগের সঙ্গে নেই তাঁরা। বাকি রইলো শুধু রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা, এসি মিলান ও জুভেন্টাস। আনেয়েল্লি এই জুভেন্টাসেরই সভাপতি।

default-image

সুপার লিগ অঙ্কুরেই বিনষ্ট হয়ে গেছে, এমন কথা বললেও আনেয়েল্লি এখনো বিশ্বাস করেন, ফুটবলের ভালোর জন্যই এ পদক্ষেপ নিয়েছিলেন তাঁরা, ‘এ প্রকল্পের সৌন্দর্য নিয়ে আমার এখনো কোনো সন্দেহ নেই। কিন্তু এ পরিস্থতিতে এই প্রকল্প চালু করা সম্ভব হবে না।’

এদিকে চার ভাইস চেয়ারম্যানের প্রত্যেকের ক্লাব লিগ থেকে সরে দাঁড়ালেও লিগের সভাপতি, রিয়াল মাদ্রিদের প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ এখনো এ ব্যাপারে কোনো বক্তব্য দেননি।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন