বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পেশাদার ফুটবলে সবচেয়ে বেশি বয়সে মাঠে নামার রেকর্ডটি এজেলদিন বাহাদেরের। ৭৫ বছর বয়সী মিসরীয় এই ভদ্রলোক পুরকৌশলে ক্যারিয়ার গড়েছেন, যৌবনে অপেশাদার ফুটবল খেলেছেন। কিন্তু পেশাদার ফুটবলার হতে না পারার আক্ষেপ ভুলেছেন ২০২০ সালের মার্চে। মিসরের তৃতীয় বিভাগে সিক্স অক্টোবর দলের হয়ে নেমে গোলও করেছিলেন এই স্ট্রাইকার। পরে অক্টোবরে নিজের ৭৫তম জন্মদিনের এক মাস আগে গিনেস বুকে নামও লিখিয়েছেন সবচেয়ে বেশি বয়সী ফুটবলার হিসেবে।

বাহাদেরের সে ঘটনা রেকর্ড হলেও সেটি ছিল তৃতীয় স্তরের ফুটবল। কিন্তু গতকাল ইন্টার মুনহোটাপু ও অলিম্পিয়ার ম্যাচটি ছিল মহাদেশীয় প্রতিযোগিতায়। এমন পর্যায়ে ৬০ বছর বয়সী কারও ৫৪ মিনিট মাঠে থাকা বিস্ময়কর তো বটেই। সেটাও আবার ১০ বছর পর মাঠে নেমেছিলেন তিনি। তবে ব্রান্সভিক মুনহোটাপু ক্লাবের মালিক এবং দলটির সভাপতির দায়িত্বে আছেন, এ তথ্য সে বিস্ময়টুকু কমিয়ে দেয়। ম্যাচ শেষে প্রতিপক্ষ দলের খেলোয়াড়দের ১০০ ডলার করে বখশিশ দিয়েছেন ব্রান্সভিকও।

সুরিনামের স্বাধীনতাকামী লিবারেশন পার্টি, যা জঙ্গল কমান্ডো নামেই পরিচিত ছিল, তার প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন ব্রান্সভিক। ১৯৮৬ সালে শুরু হওয়া গৃহযুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা ব্রান্সভিক এরপর দেশটির রাজনীতিতেও বড় ভূমিকা রেখেছেন। যদিও নিজেকে শুধু সেখানেই আটকে রাখেননি। ১৯৯২ সালে শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরের পর তাঁর বিরুদ্ধে মাদক পাচারের অভিযোগ করেছিল নেদারল্যান্ডস। শাস্তিও দেওয়া হয়েছিল, তাঁকে সে শাস্তি আর বুঝিয়ে দিতে পারেনি দেশটি।

২০০২ সালে মুনহোটাপু ক্লাবের স্টেডিয়াম গড়ে দিয়েছেন। স্টেডিয়ামের নামটি অবশ্য নিজের নামেই রেখেছেন ব্রান্সভিক। এই ক্লাবের মালিক হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে খেলোয়াড়ের ভূমিকাতেও তাঁকে দেখা যায়।

২০০৫ সালে এক খেলোয়াড়কে মাঠে অস্ত্র হাতে হুমকি দেওয়ায় তাঁকে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। পরে সে অভিযোগের পক্ষে প্রমাণ মেলেনি। ২০১২ সালে এক রেফারিকে হেনস্তা করেও নিষিদ্ধ হয়েছিলেন ব্রান্সভিক।

নিউইয়র্ক টাইমসে ব্রান্সভিকের পরিচয় দেওয়া হয়েছে এভাবে, ‘দুর্দান্ত প্যারাট্রুপার, ফুটবল খেলোয়াড়, পলাতক ব্যাংক ডাকাত, গেরিলা নেতা, সোনা ব্যবসায়ী এবং অন্তত ৫০ শিশুর বাবা।’ তাঁর পরিচয়ের তালিকায় সবচেয়ে বেশি বয়সে আন্তর্জাতিক ক্লাব ফুটবল খেলার বিশ্ব রেকর্ডধারীটাও যোগ করে নিলেন ব্রান্সভিক।

একটাই দুঃখ তাঁর, ইন্টারপোলের চোখে অপরাধী হওয়ায় পরের লেগে খেলতে পারবেন না ব্রান্সভিক।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন