লা লিগার সর্বোচ্চ গোলদাতা এখন মেসি।
লা লিগার সর্বোচ্চ গোলদাতা এখন মেসি।ছবি: এএফপি

লা লিগায় প্রথম ছয় ম্যাচে মাত্র ১ গোল, প্রথম ১৫ ম্যাচে ৭ গোল। খেলোয়াড়টির নাম যখন লিওনেল মেসি, পরিসংখ্যানটা যে একদমই বেমানান। গোল করাটাই তো বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন মহাতারকার জন্য সবচেয়ে সহজ কাজ। দলে নিজের ভূমিকা বদলের কারণেই কিনা সেই লিগের শুরুতে সেই সহজ কাজটা করা হচ্ছিল না সর্বকালের সেরাদের কাতারে নাম লেখানো মেসির।

কিন্তু কাল রাতে সেই মেসিই কিনা উঠে গেলেন লা লিগার সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকার শীর্ষে। এলচের বিপক্ষে জোড়া গোল করেই সাবেক সতীর্থ লুইস সুয়ারেজকে পেছনে ফেললেন বার্সেলোনা অধিনায়ক। লিগে মেসির গোল এখন ১৮টি, বার্সেলোনা ছেড়ে এ মৌসুমেই আতলেতিকো মাদ্রিদে যোগ দেওয়া উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার সুয়ারেজের গোল ১৬টি। লিগের সর্বশেষ সাত ম্যাচেই ১১ গোল করেছেন মেসি।

মেসির জোড়া গোলের সৌজন্যে ঘরের মাঠে টানা দুই ম্যাচে পয়েন্ট হারানোর পর অবশেষ জিতেছে বার্সেলোনা। মেসি ছাড়াও কাল গোল করেছেন জর্দি আলবা। গত সপ্তাহে ক্যাম্প ন্যুতে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে পিএসজির কাছে ৪-১ গোলের হারের পর লিগের ম্যাচে কাদিজের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে রোনাল্ড কোমানের দল।

কালকের জয়ে ২৪ ম্যাচে ৫০ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে বার্সা। শীর্ষ দল আতলেতিকো অবশ্য এক ম্যাচ কম খেলেই পেয়েছে ৫৫ পয়েন্ট। ২৪ ম্যাচে ৫২ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে রিয়াল মাদ্রিদ।

default-image
বিজ্ঞাপন

মেসি কাল ৪৮ মিনিটে প্রথম গোলটি করেন। মার্টিন ব্রাথওয়েটের সঙ্গে বল দেওয়া-নেওয়া করে বক্সের ভেতরে বল পেয়ে যান মেসি, তাঁর শটে হাত লাগিয়ে এলচে গোলরক্ষক শুধু একটু দিক পরিবর্তনই করতে পেরেছিলেন। ৬৮ মিনিটে দ্বিতীয় গোলটি পেয়ে যান মেসি। ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ংয়ের দারুণ এক পাস থেকে বল পেয়ে গোলটি করেন মেসি। ৭৩ মিনিটে ব্রাথওয়েটের হেড থেকে বল পেয়ে বার্সাকে তৃতীয় গোলটি এনে দেন আলবা।

ম্যাচ শেষে আলবা জানালেন মেসির গোলে আগে ভয়েই ছিলেন তাঁরা, ‘খেলা আমাদের নিয়ন্ত্রণে থাকলেও প্রথমার্ধে আমাদের কষ্ট করতে হয়েছে। দ্বিতীয়ার্ধে লিওর (মেসি) গোল আমাদের কাজ সহজ করে দেয়, এরপর তো আমরা তৃতীয় গোলটাও পেলাম।’

এই জয় বার্সাকে সামনে এগিয়ে যেতে সাহায্য করবে বলেই বলেই ভাবছেন আলবা, ‘দলের মনোবল বাড়াতে সাহায্য করবে এই জয়। লিগের ওই ড্র ও চ্যাম্পিয়নস লিগের ওই হারের পর কাজটা মোটেও সহজ ছিল না। তবে আমরা এখনো লিগ শিরোপার জন্য লড়ছি। এখনো অনেক ম্যাচ বাকি। আমাদের লড়াই চালিয়ে যেতে হবে।’

এবারের মৌসুমটা এলচের বিপক্ষে এই ম্যাচ দিয়েই শুরু করার কথা ছিল বার্সেলোনার। কিন্তু গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগটা দেরিতে শেষ হওয়ায় বার্সাকে পর্যাপ্ত বিশ্রাম দিতে স্থগিত করা হয় ম্যাচটি।

আগামী শনিবার বার্সেলোনা লিগে পরের ম্যাচটি খেলবে সেভিয়ার মাঠে সেভিয়ার বিপক্ষে। এরপর বুধবার একই ক্যাম্পে ন্যুতে একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে কোপা দেল রের সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগের ম্যাচ। প্রথম লেগে বার্সা হেরেছে ০-২ গোলে।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন