বেশির ভাগ ফুটবলপ্রেমীই হয়তো ইতিমধ্যে দুইয়ে দুইয়ে চার মেলাচ্ছেন। না, শুধু ভোজনের জন্য মাদ্রিদে যাওয়ার কথা নয় কিলিয়ান এমবাপ্পের। কারণ, রিয়ালের সঙ্গে এমবাপ্পের সম্ভাব্য চুক্তি নিয়ে গুঞ্জন চলছে ফ্রান্স ও স্পেনের ফুটবলে।

তবে এখন পর্যন্ত সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, রিয়ালের সঙ্গে চুক্তির আলাপেও বনিবনা হচ্ছে না ফরাসি তারকার। বাতাসে গুঞ্জন, আশৈশব রিয়ালের ভক্ত এমবাপ্পের মনে রিয়ালই বেশি জায়গা দখল করে রাখলেও ইমেজস্বত্ব নিয়ে রিয়ালের সঙ্গে ঝামেলা বাঁধছে এমবাপ্পের।

ফরাসি তারকা চান তাঁর ইমেজস্বত্ব থেকে শতভাগ আয়ই তিনি পাবেন কিন্তু অন্য সব খেলোয়াড়ের ক্ষেত্রে যে নীতি, রিয়াল সেটি অনুসরণ করে ৫০ শতাংশ নিজেদের কাছে রাখতে চায়। রিয়ালে গেলে সে ক্ষেত্রে এমবাপ্পের আয় কমে যাবে। অন্যদিকে পিএসজি তাঁকে শতভাগ ইমেজস্বত্ব তো দিয়ে রেখেছেই, বাড়তি বেতনের পাশাপাশি নিশ্চিত করেছে, চুক্তি নবায়ন করলেই ‘চুক্তি নবায়ন বোনাস’ হিসেবে ১০ কোটি ইউরো পাবেন এমবাপ্পে। শেষ পর্যন্ত কোনটি বেছে নেবেন ফরাসি তারকা? রিয়াল না পিএসজি?

এমবাপ্পের মাদ্রিদে যাওয়ার পর অবশ্য রিয়ালের পক্ষেই ভোট পড়ার সম্ভাবনা বেশি।

তবে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘মার্কা’ জানিয়েছে, আনুষ্ঠানিকভাবে নাকি বলা হয়েছে, সময় কাটাতেই মাদ্রিদে গেছেন এমবাপ্পে। পিএসজির সঙ্গে এমবাপ্পের চুক্তির মেয়াদ ফুরাতে আর দুই মাস বাকি। সিদ্ধান্ত যা নেওয়ার এর মধ্যেই নিতে হবে এমবাপ্পেকে আর তাঁর পরিবারেরও নাকি এর মধ্যে মাদ্রিদ ঘুরে যাওয়ার কথা রয়েছে।

কাদেনো কোপের প্রতিবেদক জাভি গোমেজ জানান, বেলা ২টায় লেনা রেস্তোরাঁয় রিজার্ভেশন রাখা ছিল এমবাপ্পের। বিকেল ৩টা ২৫ মিনিটের আগে কেউ আসেননি। এরপর হাকিমি তাঁর ভাই এবং এমবাপ্পেসহ আরও দুজন লোকের সঙ্গে ঢুকেছেন রেস্তোরাঁয়। কালো টুপি, কালো রোদচশমা এবং ডেনিম জ্যাকেট পরে রেস্তোরাঁয় ঢোকেন এমবাপ্পে।

বুধবারের আগ পর্যন্ত পিএসজিতে অলস সময় কাটত ফরাসি তারকার, এই ছুটিটি মাদ্রিদে শুধু ভোজনেই কাজে লাগাবেন নাকি ভেতরে-ভেতরে রিয়ালের সঙ্গে দেনদরবার চালাচ্ছেন এমবাপ্পে, তা সময়ই বলে দেবে।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন