default-image
নিজেদের হোম ভেন্যু সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে মোহামেডানকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র।


সিলেটে শেখ রাসেলের বিপক্ষে ৩-০ গোলে হেরেছে মোহামেডান। এটা কি কোনো বড় খবর?

না! ঐতিহ্যবাহী মোহামেডানের হার এখন আর বড় কোনো খবর না। এক ম্যাচ আগেই আরামবাগের বিপক্ষে ৪-১ গোলে হেরেছিল সাদা কালোরা। ৩ গোলের ব্যবধানে হার তাই নতুন কিছু নয়। ঐতিহ্যবাহীদের জালে আজ একবার করে বল পাঠিয়েছেন রাসেলের তিন বিদেশি রাফায়েল অনব্রো, অ্যালিসন উদোকা ও আজিজজভ আলিশের। এই হার দিয়ে চলতি প্রিমিয়ার লিগে হ্যাটট্রিক পরাজয়ের স্বাদ পেয়েছে মোহামেডান।

লিগের প্রথম ম্যাচে এনকোচা কিংসলের জোড়া গোলের ওপর ভর করে বিজেএমসির বিপক্ষে ২-১ গোলে জয় পেয়েছিল মোহামেডান। এর পর থেকেই ধরা পড়েছে সাদা-কালোদের কঙ্কালসার দেহটা। আরামবাগের বিপক্ষে ৪-১ গোলের পর ব্রাদার্সের বিপক্ষেও ১-০ গোলে হার। আজ আবার সাইফুল বারি টিটুর শিষ্যদের সামনে পাড়া-মহল্লার দলের মতো মনে হচ্ছিল মোহামেডানকে।

রক্ষণ থেকে শুরু করে মাঝমাঠ, ফরোয়ার্ড লাইন কোথাও ভরসার কোনো নাম নেই মোহামেডানের। বরং চলতি মৌসুমে সাইফুল বারীর হাতে পড়া শেখ রাসেল রীতিমতো হয়ে উঠেছে দুর্বার। রাসেলের বিদেশি ফরোয়ার্ড লাইনের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি মোহামেডানের ভঙ্গুর রক্ষণ। ৭ মিনিটে প্রথমে দলকে এগিয়ে নেন নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড রাফায়েল। ডান প্রান্ত থেকে বিপলু আহমেদের ক্রসে বুকে বল নামিয়ে দুর্দান্ত ভলিতে ১-০ করেছেন নাইজেরিয়ান। ৪২ মিনিটেও রাফায়েল পেতে পারত দ্বিতীয় গোল। কিন্তু অ্যালেক্সের কর্নার থেকে উড়ে আসা বলটি হেড করলে ক্রসবারে লেগে ফেরে। ফিরতি বলে ভলিতে অ্যালিসন করেন ২-০।

বিরতিতে যাওয়ার আগেই দুই গোলে এগিয়ে গিয়ে ম্যাচটা হাতের মুঠোয় নিয়ে আসে সাইফুল বারির দল। ৭০ মিনিটে রক্ষণ আরও জমাট করতে মিডফিল্ডার বিপলুকে তুলে ডিফেন্ডার আরিফুল ইসলামকে নামানো হয়। এরপরও দুর্দান্ত গোলে ব্যবধান বাড়িয়েছে রাসেল। ৮৬ মিনিটে মোহামেডান গোলরক্ষক সারোয়ার জাহানের গোল কিক এসে পড়ে উজবেকিস্তানের স্ট্রাইকার আলিশেরের পায়ে। বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে রাফায়েলের সঙ্গে ওয়ান টু ওয়ান করে বক্সে দুই ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে ডান পায়ের শটে জাল কাঁপিয়ে দেন। পুরো ম্যাচে মোহামেডানের চোখে পড়ার মতো আক্রমণ ছিল না বললেই চলে।

এই নিয়ে লিগে চার ম্যাচে টানা তৃতীয় হার মোহামেডানের। আর নিজেদের হোম ভেন্যু সিলেটে দুর্দান্ত জয় তুলে অভিষেক ম্যাচটা স্মরণীয় করে রাখল শেখ রাসেল। টানা তৃতীয় জয়ে ৯ পয়েন্ট রাসেলের।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0