করোনায় ঘরোয়া ফুটবল বন্ধ হওয়ার আগে ১৫ মার্চ প্রিমিয়ার লিগের সর্বশেষ ম্যাচে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়াচক্রকে হারিয়েছিল আবাহনী লিমিটেড।
করোনায় ঘরোয়া ফুটবল বন্ধ হওয়ার আগে ১৫ মার্চ প্রিমিয়ার লিগের সর্বশেষ ম্যাচে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়াচক্রকে হারিয়েছিল আবাহনী লিমিটেড। ফাইল ছবি: প্রথম আলো

করোনাভাইরাস যুগের আগে প্রিমিয়ার লিগের সর্বশেষ ম্যাচ হয়েছিল গত ১৫ মার্চ। এর পর প্রথমে স্থগিত ও শেষ পর্যন্ত বাতিল করা হয় প্রিমিয়ার লিগ। অবশেষে ফিরতে যাচ্ছে ঘরোয়া ফুটবল। আজ পেশাদার লিগ কমিটির সভায় বসে আগামী ১৯ ডিসেম্বর ফেডারেশন কাপ দিয়ে নতুন মৌসুম শুরুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সে হিসেবে ২১৪ দিন পর ফিরতে যাচ্ছে দেশের ফুটবল।

আজকের সভায় চূড়ান্ত হয়েছে খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিকের বিষয়টিও। বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন আগের মৌসুমের চুক্তি অনুযায়ী ৪০ ভাগ পারিশ্রমিকের আশ্বাস দিলেও লিগ কমিটির সভায় কমে হয়েছে ৩৫ ভাগ। যদিও লিগ কমিটির আগের সভায় ঠিক হয়েছিল নতুন মৌসুমে ফুটবলারদের ২৫ শতাংশ পারিশ্রমিক দেবে ক্লাবগুলো।

বিজ্ঞাপন

পেশাদার লিগের ক্লাবগুলোর সঙ্গে বসে বাফুফে আগেই ঘোষণা দিয়েছিল, প্রতি মৌসুমের মতো এবার স্থানীয় খেলোয়াড়দের দলবদল হবে না। তবে আলোচনার প্রেক্ষিতে যে কোনো খেলোয়াড় দলবদলের সুযোগ পাবেন। এমন খেলোয়াড়দের নাম ৩০ অক্টোবরের মধ্য ক্লাবগুলো জানাবে বাফুফেকে। ১ নভেম্বর থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে খেলোয়াড় নিবন্ধন কার্যক্রম।

গুঞ্জন ছিল এবার বিদেশি ফুটবলার ছাড়াই হতে পারে নতুন মৌসুম। শেষ পর্যন্ত তা গুঞ্জনই থেকে গেল। ৪ জন বিদেশি খেলোয়াড় নাম নিবন্ধন করিয়ে চারজনকেই খেলানোর সুযোগ রাখা হয়েছে। একজন হতে হবে এশিয়ান।

default-image

অবশ্য বাফুফে এই সিদ্ধান্ত জানায় আগেই। গতবার পাঁচজনের নাম নিবন্ধনের সঙ্গে পাঁচজনেরই খেলানোর সুযোগ ছিল। তবে এক সঙ্গে মাঠে থাকতে পারত চারজন।

ফেডারেশন কাপ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে হলেও লিগের ভেন্যুর ব্যাপারে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি বাফুফের লিগ কমিটি। প্রিমিয়ার লিগের ভেন্যু হিসেবে আর্মি স্টেডিয়াম, গাজীপুরের শহীদ বরকত স্টেডিয়াম, নরসিংদীর মোসলেহ উদ্দীন ভূঁইয়া স্টেডিয়াম, বিকেএসপি ও কুমিল্লা জেলা স্টেডিয়াম বিবেচনায় রাখা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামসহ এবার ৩-৪টি ভেন্যুতে প্রিমিয়ার লিগের খেলা হতে পারে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন