বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

পিএসজি জিতলেও তাই প্রশ্ন উঠে গিয়েছে, পিএসজি কি তবে মেসিকে ছাড়াই ভালো খেলে? মেসি কি এসে আরও পিএসজির আক্রমণ-পরিকল্পনায় সমস্যা সৃষ্টি করছেন?

যদিও ম্যাচ শেষে কোচ জানিয়েছেন, মেসিকে মাঠ থেকে তুলে নেওয়ার পেছনে এসব কোনো কারণ নয়। কিছুদিন আগেই মাংসপেশির চোট থেকে ফিরেছেন মেসি, এখনো পুরোপুরি ফিট নন। সামনে জার্মান ক্লাব লাইপজিগের সঙ্গে চ্যাম্পিয়নস লিগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ, এই অবস্থায় মেসিকে পুরো ম্যাচ খেলানোর ঝুঁকি নিতে চাননি পচেত্তিনো, ‘আমাদের অপেক্ষা করতে হবে। আমি চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলেছি। এ সিদ্ধান্তটা সতর্কতা হিসেবেই নেওয়া হয়েছে। মেসি খেলতে পারছিল না। কিন্তু এটা বড় কোনো ব্যাপার নয়। আশা করি ও পরবর্তী ম্যাচের আগেই পুরো ফিট হয়ে যাবে।’

default-image

কারণ যা–ই হোক না কেন, তাতে পিএসজির হয়ে বিবর্ণ মেসিকে আড়াল করা যাচ্ছে না। লিগে এখনো গোলহীন মেসি। লিগে টানা পাঁচ ম্যাচ খেলে ফেললেও লিগ আঁতে এখনো গোল করা হয়নি আর্জেন্টাইন অধিনায়কের। কালও প্রথমার্ধের শেষ দিকে একটি ফ্রি-কিক পেয়েছিল পিএসজি, যে দূরত্ব থেকে বার্সেলোনার হয়ে মুড়িমুড়কির মতো গোল করেছেন মেসি। সে মেসিই কাল ফ্রি-কিকটা মারলেন আকাশে! মেসির বিবর্ণ হওয়ার রাতে কাল নায়ক ছিলেন দি মারিয়াই।


৩১ মিনিটে অবশ্য এগিয়ে গিয়েছিল লিলই। লিগে গত কিছুদিন পিএসজির ত্রাণকর্তা কিলিয়ান এমবাপ্পে অসুস্থতার কারণে ছিলেন না। মেসি-নেইমার-দি মারিয়াই ছিলেন আক্রমণে। বাঁ দিক থেকে বিপজ্জনকভাবে বক্সে ঢুকে যাওয়া তুরস্কের স্ট্রাইকার বুরাক ইলমাজকে আটকাতে পারেননি পিএসজির জার্মান রাইটব্যাক থিলো কেহরের।

ইলমাজের পাসে পা ছুঁইয়ে বর্তমান লিগ চ্যাম্পিয়নদের এগিয়ে দেন কানাডার স্ট্রাইকার জোনাথান ডেভিড। কিছুতেই কিছু হচ্ছে না দেখে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে মেসির জায়গায় ইকার্দিকে মাঠে নামান পচেত্তিনো।


দ্বিতীয়ার্ধে ৭৪ মিনিটে দি মারিয়ার পাসে দুর্দান্ত এক ভলিতে দলকে সমতায় ফেরান অধিনায়ক মার্কিনিওস। দল গোল পাওয়ার পর দি মারিয়া যেন আরও ভয়ংকর হয়ে ওঠেন। ৮৮ মিনিটে নেইমারের সঙ্গে দুর্দান্ত ওয়ান-টু পাসে দলকে এগিয়ে দেন এই আর্জেন্টাইন উইঙ্গার। পিএসজির জয়টাও নিশ্চিত হয় তাতেই।


১২ ম্যাচ খেলে ১০ জয়ে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে আছে পিএসজি। দ্বিতীয় স্থানে থাকা লেঁস এক ম্যাচ কম খেললেও পিছিয়ে আছে ১০ পয়েন্টে। ১৫ পয়েন্ট নিয়ে লিল আছে ১১ নম্বরে।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন