default-image

এখনো এক বছরও পূর্ণ হয়নি, বড় ধুমধামে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে ফিরেছিলেন তিনি। ফিরে নিজের কাজটা তিনি ঠিকই করেছেন, সব সময় গোল করতেন, এখানেও একেবারে খারাপ করেননি। মৌসুমে ২৪ গোল, লিগে ১৮টি, যেখানে মৌসুমে ইউনাইটেডের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা ব্রুনো ফার্নান্দেজের গোলও তাঁর অর্ধেকের কম…৩৭ বছর বয়সী একজনের জন্য পরিসংখ্যানগুলো বেশ ভালোই।

কিন্তু এই বয়সে এসে এখন আর রোনালদো গোলের বাইরে দলের খেলায় তেমন অবদান রাখতে পারেন না, প্রতিপক্ষের পা থেকে বল কেড়ে নেওয়ার কাজে সতীর্থদের তেমন সাহায্য করেন না, তাঁর কারণে দলের রক্ষণের গঠনে চাপ পড়ে…সেসব আলোচনা মৌসুমজুড়েই ছিল।

সে কারণে আয়াক্স থেকে এরিক টেন হাগকে যখন এই মৌসুমে কোচ করে নিয়ে এল ইউনাইটেড, টেন হাগের ‘প্রেসিং’ কৌশলের সঙ্গে রোনালদো কতটা মানিয়ে নিতে পারবেন, রোনালদোকে টেন হাগ চান কি না…সেসব নিয়ে সংশয় ছিল।

default-image

উলটো দিকে এবার চ্যাম্পিয়নস লিগে জায়গা করে নিতে ব্যর্থ ইউনাইটেডে রোনালদো নিজেই থাকতে চান না, এমন একটা গুঞ্জনও ছিল। তিনি চ্যাম্পিয়নস লিগ খেলতে চান। পাশাপাশি শোনা যায়, টেন হাগ যাওয়ার পরও ক্লাবের দলবদলে উচ্চাভিলাষ দেখতে না পেয়ে রোনালদো বিরক্ত। তাঁর মনে হয়েছে, ইউনাইটেড শিরোপার লড়াইয়ে থাকার মতো দল গড়ছে না।

কারণ যা-ই হোক, ইংল্যান্ডে জোর গুঞ্জন, ইউনাইটেডে চুক্তিতে এক মৌসুম বাকি থাকলেও রোনালদো আর ক্লাবে থাকতে চান না। চেলসি, বায়ার্ন মিউনিখ, পিএসজির মতো ক্লাবের সঙ্গে তাঁর নাম জড়িয়ে দলবদলের গুঞ্জনও ছড়িয়েছে।

এর মধ্যে দ্য সান জানাচ্ছে উলটো খবর, রোনালদোর ওপর ইউনাইটেডও নাকি কিছুটা বিরক্ত। কেন? গত ১ জুলাই ক্লাবে সব চুক্তির নতুন মৌসুম শুরু হয়েছে, সেখানে আগের কিছু দেনা-পাওনার হিসেবও মিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। তার মধ্যে রোনালদো পেয়েছেন কিছু বোনাস। সেটি পাওয়ার পর রোনালদোর ক্লাব ছাড়তে চাওয়ার ইচ্ছার কথা জানানো নাকি ভালোভাবে নেয়নি ইউনাইটেড।

default-image

ক্লাবের ভেতরের এক সূত্রকে উদ্ধৃত করে দ্য সান লিখেছে, ‘জুলাইয়ের শুরুতে সব চুক্তির নতুন মৌসুম শুরু হয়, এরপর খবর এল যে ও ক্লাব ছাড়তে চায়। ও ভুল কিছু করেনি, কিন্তু কেউ কেউ মনে করছেন, ও বোনাস পাওয়ার আগেই ক্লাব ছাড়তে চাওয়ার ইচ্ছার কথা না জানানো কোনো কাকতাল নয়।’

যদিও এখানে ইউনাইটেডের কর্তাদের রাগ হওয়ার কোনো যুক্তি নেই। রোনালদোর বোনাসটা যে ‘আনুগত্যের বোনাস’ নয়, সেটি জোর দিয়েই বলছে ইংলিশ সংবাদমাধ্যম। সেই বোনাস নেওয়া মানে ইউনাইটেডে আরেক মৌসুম থেকে যাওয়ার একটা নৈতিক চাপ তৈরি হতো। যে বোনাস রোনালদো পেয়েছেন, সেটি মূলত গত মৌসুমে রোনালদোর পারফরম্যান্সের কিছু শর্ত পূরণের পুরস্কার। আর কিছু ছিল তাঁর ইমেজস্বত্ত্ব বাবদ পাওনা।

তা বোনাসের অঙ্কটা কত? স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মার্কা জানাচ্ছে, এখনো পুরোপুরি নিশ্চিত না হলেও অঙ্কটা ৯ লাখ ইউরোর মতো। বাংলাদেশি মুদ্রায় ৮ কোটি ৫০ লাখ টাকার কিছু বেশি।

রোনালদোর জন্য সম্ভবত অঙ্কটা তেমন বড় কিছুও নয়!

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন