default-image

রেসলিং-ভক্তদের জন্য গত রাতটা তেমন ভালো যায়নি। করোনাকালে প্রতিষ্ঠানের খরচ কমানোর উদ্দেশ্যে বিশ্বখ্যাত রেসলিং প্রতিষ্ঠান ওয়ার্ল্ড রেসলিং এন্টারটেইনমেন্ট (ডব্লিউডব্লিউই) বেশ কিছু জনপ্রিয় রেসলারকে ছাঁটাই করেছে। যাঁদের ছাঁটাই করা হয়েছে, তাঁদের অনেকের নাম শুনে চোখ কপালে উঠে গেছে রেসলিং-ভক্তদের!

ঠিক এক বছর আগে করোনাভাইরাসের দোহাই দিয়ে বিভিন্ন পর্যায়ের শ খানেক কর্মী ছাঁটাই করেছিল বিশ্বখ্যাত রেসলিং প্রতিষ্ঠান ডব্লিউডব্লিউই। এক বছর পর সে ধারার কোনো ব্যতিক্রম ঘটল না। রেসলিং-বিষয়ক নির্ভরযোগ্য ওয়েবসাইট ফাইটফুল ডটকমের সাংবাদিক শন রস স্যাপ জানিয়েছেন, খরচ কমাতেই ডব্লিউডব্লিউইর এই ‘উদ্যোগ’। আর প্রতিষ্ঠানপ্রধান ভিন্স ম্যাকম্যাহানের সঙ্গে আলোচনার প্রেক্ষিতে ছাঁটাই করার ব্যাপারে মূল সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির ‘ট্যালেন্ট রিলেশনস’-এর প্রধান জন লরিনাইটিস, যিনি ব্যক্তিগত জীবনে দুই রেসলার নিকি ও ব্রি বেলার বাবা।

বিজ্ঞাপন

যদিও যে প্রতিষ্ঠান গত বছরে করোনাভাইরাসের মধ্যেও রেকর্ড পরিমাণ লাভ করেছে, সে প্রতিষ্ঠানের এভাবে ছাঁটাই করার কী দরকার, প্রশ্ন উঠেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

ছাঁটাই হওয়া তারকাদের মধ্যে সবচেয়ে বড় নাম সামোয়া জো (আসল নাম নুফালু জোয়েল সিনোয়া)। রিং অব অনার ও টিএনএর মতো রেসলিং প্রতিষ্ঠানে নাম কামানোর পর জো ডব্লিউডব্লিউইতে নাম কবে লেখান, সেটা দেখার আগ্রহ ছিল সবার মধ্যেই। শেষমেশ ২০১৫ সালে ডব্লিউডব্লিউইতে যোগ দেন জো। দুবার এনএক্সটি চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন, একবার হয়েছেন ইউনাইটেড স্টেটস চ্যাম্পিয়ন। ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে চোটে পড়ার পর রিংয়ে খেলতে নামেননি। কিন্তু তাই বলে চুপচাপ যে বসে ছিলেন, তা না। নিজেকে দুর্দান্ত এক ধারাভাষ্যকার হিসেবে প্রমাণ করেছিলেন। এমনকি গত সপ্তাহেও রেসলম্যানিয়ার অন্যতম ধারাভাষ্যকার ছিলেন তিনি। বৃষ্টির কারণে ইভেন্ট শুরু হতে যখন দেরি হচ্ছিল, ওই সময়ে মাইকেল কোলের সঙ্গে বেশ ভালোভাবেই নিজের দায়িত্ব পালন করেছেন, দর্শকদের বিনোদন দিয়েছেন।

default-image

কিন্তু রেসলম্যানিয়ার পরই ধারাভাষ্যকারদের টেবিল থেকে তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হয়। রেসলিংভক্তরা আশাবাদী ছিলেন, হয়তো চোট থেকে ফিরছেন এই রেসলার। কিন্তু সবাইকে হতাশ করে প্রতিষ্ঠান থেকেই বিদায় নিয়েছেন এই রেসলার। জো-এর মতো দুর্দান্ত একজন রেসলারকে কীভাবে ডব্লিউডব্লিউইর সবচেয়ে বড় পুরস্কার ডব্লিউডব্লিউই চ্যাম্পিয়ন না জিতিয়ে প্রতিষ্ঠান থেকে বের করে দেওয়া হলো, বুঝছেন না অনেকে।

জো ছাড়াও ছাঁটাই হয়েছেন ‘দ্য আইকনিকস’ খ্যাত নারীদের দলগত চ্যাম্পিয়নশিপ জেতা পেটন রয়েস (আসল নাম ক্যাসান্দ্রা ম্যাকিন্টোশ) ও বিলি কে (জেসিকা ম্যাকেই)। ছাঁটাই হওয়ার তালিকায় আরও আছেন সাবেক এনএক্সটি চ্যাম্পিয়ন বো ডালাস (টেলর মাইকেল রোটুন্ডা), পাঁচবারের নারীদের চ্যাম্পিয়ন মিকি জেমস, ‘হেভি ম্যাশিনারি’খ্যাত দলগত রেসলার টাকার (লেভি কুপার), সাবেক দলগত, ক্রুজারওয়েট ও ইউনাইটেড স্টেটস চ্যাম্পিয়ন কালিস্তো (ইমানুয়েল আহেনাদ্রো রদ্রিগেস), মোজো রওলি (ডিন জোনাথন মুহতাদি), ওয়েসলি ব্লেক (কোরি জেমস ওয়েস্টন)। কিছুদিন আগে প্রতিষ্ঠান ছেড়েছেন সাবেক এনএক্সটি ও ইউনাইটেড স্টেটস চ্যাম্পিয়ন আনদ্রাদে-ও (আম্নুয়েল আলফোনসো ওরেপাজা)।

বিজ্ঞাপন

গত বছর ঠিক একই দিনে ডব্লুডব্লুই ছাঁটাই করেছিল কার্ট অ্যাঙ্গেল, রুসেফ (মিরোস্লাভ বার্নইয়াশেভ), জ্যাক রাইডার (ম্যাট কারদোনা), কার্ট হকিন্স (ব্রায়ান মেয়ার্স), কার্ল অ্যান্ডারসন (চ্যাড অ্যালেগ্রা), লুক গ্যালোস (ড্রু হ্যানকিনসন), হিথ স্লেটার (হিথ মিলার), এরিক ইয়ং (জেরেমি ফ্রিতজ), এরিক রোয়ান (জোসেফ রুড), সারা লোগান (সারা রো) প্রমুখ। যদিও এদের অধিকাংশই কিছুদিনের মধ্যেই ‘অল এলিট রেসলিং (এইডব্লিউ)’ কিংবা ‘টোটাল ননস্টপ অ্যাকশনের (টিএনএ)’ মতো প্রতিষ্ঠানগুলোয় চাকরি পেয়ে গিয়েছিলেন।

দেখা যাক, জো-দের ভাগ্যে কী আছে!

অন্য খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন