বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

এই প্রতিযোগিতায় র‌্যাঙ্কিং রাউন্ডেও ভালো স্কোর করতে পারেননি দেশসেরা আর্চার রোমান। বাংলাদেশের আরেক আর্চার রামকৃষ্ণ সাহা প্রথম রাউন্ডে ৬-২ সেট পয়েন্টে পর্তুগালের লুইস গনকালভেসের বিপক্ষে জিতলেও হেরে গেছেন পরের রাউন্ডে। মেক্সিকোর লুইস আলভারেজের কাছে রামকৃষ্ণ হারেন ৪-৬ সেট পয়েন্টে।


এই ইভেন্টে বাংলাদেশের হয়ে সবচেয়ে ভালো খেলেছেন হাকিম আহমেদ রুবেল। প্রথম রাউন্ডে রুবেল ৬-৪ সেট পয়েন্টে হারান চেক প্রজাতন্ত্রের মাইকেল হাওলেককে। দ্বিতীয় রাউন্ডে ৭-৩ সেট পয়েন্টে হারিয়েছেন চিলির সোটো রিকার্ডোকে। কিন্তু তৃতীয় রাউন্ডে আর পারলেন না! নেদারল্যান্ডসের উইলার স্টিভের কাছে ৪-৬ সেট পয়েন্টে হেরে বিদায় নেন রুবেল।

এই টুর্নামেন্টে মূলত রোমানকে ঘিরেই সব আশা ছিল আর্চারি ফেডারেশনের। কেননা, রোমান সানার জন্য অনুপ্রেরণার আরেক নাম বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ। ২০১৯ সালে নেদারল্যান্ডসে হওয়া বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের সেমিফাইনালে উঠে টোকিও অলিম্পিকে সরাসরি খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন রোমান। এরপর ব্রোঞ্জ জিতে বৈশ্বিক টুর্নামেন্টে বাংলাদেশকে এনে দেন প্রথম কোনো পদক।


এবার র‌্যাঙ্কিং রাউন্ডে বাজে স্কোর করার মাশুলই গুনতে হলো রোমানকে। রিকার্ভে ছেলেদের এককের এলিমিনেশন রাউন্ডে তাকে খেলতে হয়েছে তার চেয়ে তুলনামূলক কঠিন প্রতিপক্ষের সঙ্গে।

default-image

রিকার্ভের ছেলেদের র‌্যাঙ্কিং রাউন্ডে ৬৩৬ স্কোর করে ১০২ জন আর্চারের মধ্যে ৪৬তম হয়েছিলেন। গত জুলাইয়ে সর্বশেষ টোকিও অলিম্পিকের স্কোরকেও ছুঁতে পারেননি রোমান। টোকিও অলিম্পিকে রোমান ৬৬২ স্কোর করে ৬৪ জনের মধ্যে হয়েছিলেন ১৭তম।


রিকার্ভের মেয়েদের এককেও ছিল হতাশার খবর। বিউটি রায় প্রথম রাউন্ডে ৪-৬ সেট পয়েন্টে হেরেছেন স্লোভাকিয়ার ডেনিসা বারানকোভার কাছে। এ ছাড়া ছেলেদের কম্পাউন্ডের একমাত্র প্রতিযোগী অসীম কুমার দাস দ্বিতীয় রাউন্ডেই বিদায় নিয়েছেন। প্রথম রাউন্ডে অসীম স্পেনের রামোন লোপেজকে হারিয়েছেন ১৪৩-১৪২ পয়েন্টে। কিন্তু দ্বিতীয় রাউন্ডে স্লোভাকিয়ার জোসেফ বোসানস্কির কাছে অসীম হারেন ১৪৬-১৪৫ পয়েন্টে।

অন্য খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন