বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

বাংলাদেশের হকির সঙ্গে গভীরভাবে জড়িয়ে আছে নাভিদের নাম। খেলোয়াড় ও কোচ দুই ভূমিকাতেই তাঁকে দেখা গেছে বাংলাদেশে। দিনে দিনে বন্ধু হয়ে উঠেছিলেন লাল–সবুজের হকির। কাজ করেছেন এ দেশের হকি উন্নয়নে। ৯০ দশকে উষা ক্রীড়া চক্রের হয়ে খেলেন নাভিদ। খেলা ছেড়ে ২০১৩ সালে এশিয়া কাপ হকিতে বাংলাদেশ দলের কোচও ছিলেন।

default-image

নাভিদের সঙ্গে ঊষা ক্রীড়া চক্রে খেলেছেন জাতীয় হকি দলের সাবেক অধিনায়ক ও ডিফেন্ডার মামুনুর রশিদ। নাভিদের মৃত্যুর খবরে ব্যথিত মামুনুর প্রথম আলোকে বলেন, ‘১৯৯৯ সালে নাভিদের সঙ্গে ঊষায় খেলেছি। তিনি শুধু ভালো খেলোয়াড় ছিলেন না, অনেক উঁচু মাপের মানুষও ছিলেন। পরবর্তীকালে কোচ হয়ে এসে খেলোয়াড়দের ব্যক্তিগতভাবে অনেক সহযোগিতা করতেন।’

১৯৯৪ সালে পাকিস্তানকে বিশ্বকাপ জিতিয়েছেন এই ডিফেন্ডার।

নব্বই দশকে পাকিস্তান জাতীয় হকি দলের নিয়মিত খেলোয়াড় ছিলেন নাভিদ। ১৯৯৪ সালে পাকিস্তানকে বিশ্বকাপ জিতিয়েছেন এই ডিফেন্ডার। খেলা ছাড়ার পর কোচ হিসেবেও আলো কাড়েন। ২০০৮ বেইজিং অলিম্পিকে পাকিস্তান দলের কোচ ছিলেন। বাংলাদেশ ছাড়াও ছিলেন চীন জাতীয় দলের কোচ।

অন্য খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন