বাংলাদেশের হয়ে টেবিল টেনিস খেলার স্বপ্ন দেখেন মুরহাদ হোসেইন।
বাংলাদেশের হয়ে টেবিল টেনিস খেলার স্বপ্ন দেখেন মুরহাদ হোসেইন।ছবি: প্রথম আলো

ফর্সা মুখটা অন্ধকার আঁধারে ঢাকা। একটু আগে খেলায় জিতলেও চোখে–মুখে নেই উচ্ছ্বাসের আভা। থাকবেই-বা কী করে! প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে খেলতে এসে বাজে অভিজ্ঞতার শিকার হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত যুক্তরাজ্যপ্রবাসী টেবিল টেনিস খেলোয়াড় মুরহাদ হোসেইন। পল্টনের শহীদ তাজউদ্দীন উডেন ফ্লোর জিমনেসিয়াম থেকে চুরি হয়ে গিয়েছে তাঁর ব্যাগ। যার মধ্যে ছিল ১৫ হাজার টাকা, ৪০ পাউন্ড, মোবাইল ফোন, ল্যাপটপের চার্জার ও ড্রাইভিং লাইসেন্স।

মুরহাদের বাবা মোকাদ্দেস হোসেন প্রায় ৩০ বছর আগে ইংল্যান্ডে পাড়ি জমান। সেখানেই জন্ম মুরহাদের। বর্তমানে নটিংহাম ট্রেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার সায়েন্স ও গেম ডেভেলপমেন্টে পড়াশোনা করছেন তিনি। কিন্তু এই তরুণের মাথায় টেবিল টেনিসের পোকা। যা তাঁকে টেনে এনেছে শিকড়ের দেশ বাংলাদেশে। কিন্তু এসে খোয়াতে হলো টাকাপয়সার সঙ্গে শখের মুঠোফোনটি।

বিজ্ঞাপন
default-image

সিনিয়র ও প্রথম বিভাগের ৩৭টি দল নিয়ে আজ উডেন ফ্লোরে শুরু হয়েছে মুজিব শতবর্ষ ঢাকা মহানগরী টেবিল টেনিস লিগ। সিনিয়র বিভাগে পাললিক ক্লাবের হয়ে খেলছেন ২০ বছর বয়সী মুরহাদ। দুপুরে লিগের উদ্বোধনের সময়ই হারিয়ে যায় তাঁর ব্যাগটি। প্রথম আলোকে মুরহাদ বলেন, ‘আমার ব্যাগটি চুরি হয়ে গেছে। ব্যাগের মধ্যে বাংলাদেশি টাকায় ১৫ হাজার টাকার সঙ্গে ৪০ পাউন্ড ছিল। এ ছাড়া মুঠোফোন ও ড্রাইভিং লাইসেন্স ছিল। এতগুলো জিনিস হারিয়ে খুব খারাপ অবস্থা হয়ে গেল।’

মুরহাদের ব্যাগ হারিয়ে যাওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেছেন টিটি ফেডারেশনের সহসভাপতি খোন্দকার হাসান মুনীর। থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হবে বলে জানিয়ে মুনীর বলেন, ‘মুরহাদ হোসেইনের ব্যাগ হারিয়ে গিয়েছে। আমরা উদ্ধারের জন্য চেষ্টা করছি। থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হবে।’ জিমনেসিয়ামের সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গিয়েছে এক লোক ব্যাগ নিয়ে বের হয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু মুখে মাস্ক থাকায় তাঁর পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি।

অন্য খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন