বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

প্রায় সাড়ে তিন বছর পর ঘরোয়া হকিতে মুখোমুখি হয়েছে এই দুই দল। আবাহনী ও মোহামেডানের সর্বশেষ দেখা হয়েছিল ২০১৮ সালের ৪ জুন। প্রিমিয়ার লিগের সুপার ফাইভের ওই ম্যাচে আবাহনী ৩-২ গোলে হারিয়েছিল মোহামেডানকে। এবারও জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে আবাহনী।

আজ মোহামেডান প্রথমবারের মতো মাঠে নামিয়েছে তিন বিদেশি খেলোয়াড়। ভারতীয় খেলোয়াড় অঙ্কুশ, আমানদিপ সিং ও অতল দেব সিংকে নিয়েও খুব বেশি ভালো খেলতে পারেনি সাদা-কালোরা। আবাহনী তাদের বিদেশি খেলোয়াড় এখনো আনতে পারেনি। তবে বিদেশি ছাড়াই আবাহনী বেশ দাপটের সঙ্গেই খেলেছে।

মোহামেডানের ফরোয়ার্ড লাইনে খেলা অঙ্কুশ বেশ কয়েকটা সহজ সুযোগ নষ্ট করেছেন। আমানদিপ সিংয়ের স্টিকওয়ার্কও মন কাড়তে পারেনি। মোহামেডানের বড় ভরসা রাসেল মাহমুদও খুব বেশি উজ্জ্বল ছিলেন না। মোহামেডানে খেলা জাতীয় দলের খেলোয়াড় মাঈনুল ইসলাম ও সারোয়ার হোসেনও বড় ম্যাচে জ্বলে উঠতে পারলেন না।

default-image

ম্যাচের ১৪ মিনিটে প্রথম পেনাল্টি কর্নার পায় আবাহনী। কিন্তু সুযোগটা কাজে লাগাতে পারেনি আকাশি নীল দলটি। পরের মিনিটেই রিভার্স হিটে আবাহনীর মাহবুব হোসেন বল পাঠিয়ে দেন বাইরে। ম্যাচের ৩৭ মিনিটে প্রথম পেনাল্টি কর্নার পায় মোহামেডান। জিমির পুশ থেকে সারোয়ার স্টপ করেন। কিন্তু আশরাফুলের হিট যায় বাইরে। কিন্তু আম্পায়ারের কাছে আরেকটি পেনাল্টি কর্নারের দাবি করেন মোহামেডানের খেলোয়াড়েরা। মোহামেডানের খেলোয়াড়েরা নিজেদের দাবির প্রতি অনড় থাকায় ওই সময় প্রায় সাত মিনিট খেলা বন্ধ থাকে। তাঁরা পরে সিদ্ধান্ত মেনে খেলতে রাজি হন।

ম্যাচের শেষ দিকে এসে আবাহনী বেশি আক্রমণে উঠেছে। ম্যাচ শেষ হওয়ার ৩০ সেকেন্ড আগে মাহবুব হোসেনের পাস থেকে পুষ্কর খীসার হিটে আনন্দে মেতে ওঠে আবাহনী।

অন্য খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন