বিজ্ঞাপন
default-image

বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইউসুফ আজ প্রথম আলোকে দিলেন সেই খবর, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া কোটি টাকার চেক আমরা পেয়েছি। এই টাকা হকির পথচলায় অনেক বড় অবদান রাখবে। আমরা খুব খুশি। ক্লাবগুলোকে কিছু অনুদান দিয়ে হলেও যদি লিগটা শুরু করা যায়, সেই চেষ্টাই করছি। আমরা চাইছি ক্লাবগুলো মাঠে আসুক। আশা করছি, শিগগিরই প্রিমিয়ার লিগটা মাঠে নামাতে পারব।’

তবে পুরো এক কোটি টাকাই ক্লাবগুলোকে দেওয়া হবে নাকি একটা বড় অংশ দেওয়া হবে, তা ঠিক হয়নি। কথা ছিল ঈদের পরপরই ১২টি প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন ফেডারেশন সভাপতি। কিন্তু ফেডারেশন সভাপতি বর্তমানে ওয়াশিংটনে আছেন। ২৯ মে তাঁর ঢাকায় ফেরার কথা। সভাপতি ফিরলে ক্লাবগুলোর সঙ্গে আলোচনা হবে বলে জানিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক।

এমনিতেই নানা অজুহাতে ক্লাবগুলো লিগ খেলতে চায় না। আর্থিক সংকেট কথা বলে তারা পিছিয়ে যায়। ফেডারেশনও নিতে পারে না কঠিন কোনো অবস্থান। ক্লাব খেলতে চাইলে তবেই খেলা মাঠে গড়ায়। এটাই ঘরোয়া হকির নিয়তি হয়ে দাঁড়িয়েছে। উপরন্তু হকি ফেডারেশনের ভেতরে একটা পক্ষ লিগ আয়োজনে তেমন আগ্রহী নয় বলে জানা গেছে। ফলে ঘরোয়া হকি যে তিমিরে ছিল সেখানেই রয়ে গেছে।

default-image

ক্যাসিনো–কাণ্ডের পর থেকে আত্মগোপনে আছেন বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক ওরফে সাঈদ। অনেক দিন অনুপস্থিতির কারণে গত বছর আগস্টে তাঁকে সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে অব্যাহতি দেয় হকি ফেডারেশন। কিন্তু সেই অব্যাহতির বিরুদ্ধে মমিনুল হক আদালতে গিয়েছেন। তাঁর সমর্থকেরা লিগ মাঠে নামানোর ব্যাপারে তেমন আগ্রহী নয় বলে ফেডারেশন সূত্রের খবর।

ঘরোয়া হকি বাক্সবন্দী হলেও ফেডারেশন চোখ রাখছিল ঢাকায় অনুষ্ঠেয় দুটি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের দিকে। একটি অনূর্ধ্ব-২১ জুনিয়র এশিয়া কাপ, অন্যটি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি। দুটি টুর্নামেন্টই গত বছর হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনায় দুটি টুর্নামেন্ট বারবার পেছাচ্ছে।

জুনিয়র এশিয়া কাপ সর্বশেষ ১ থেকে ১০ জুলাই হওয়ার কথা থাকলেও করোনা পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ সরকারের অনুমতি না মেলায় অনির্দিষ্টকাল পিছিয়ে গেছে। এশিয়ার শীর্ষ ৬ দেশের (বাংলাদেশ শীর্ষ ৬ দলে নেই। স্বাগতিক হিসেবে সুযোগ পেয়েছে এই টুর্নামেন্টে)। চ্যাম্পিয়নস ট্রফির নতুন তারিখ ১ থেকে ৯ অক্টোবর। হকি ফেডারেশন আশাবাদী দুটি টুর্নামেন্টই এ বছর ঢাকায় হবে। দুটি টুর্নামেন্টেরই স্বত্ব কেনা রয়েছে বাংলাদেশের।

তবে আপাতত আন্তর্জাতিক আয়োজন একপাশে রেখে হকি খেলোয়াড়েরা তাকিয়ে আছেন লিগের দিকে। জাতীয় দলের খেলোয়াড় পুস্কর খীসার দাবি, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী হকিকে এক কোটি টাকা দিয়েছেন, এটা হকির জন্য অনেক বড় সুখবর। এখন ফেডারেশন ও ক্লাব দুই পক্ষেরই এগিয়ে আসা উচিত। ৩ বছর ধরে লিগ নেই। ফলে বিভিন্ন বাহিনীর খেলোয়াড়ের বাইরে থাকা বিপুলসংখ্যক খেলোয়াড় চরম আর্থিক সংকটে আছে। তাই যত দ্রুত সম্ভব লিগ শুরু করা হোক।’

অন্য খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন