বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আবাহনী লিমিটেডও নাকি আপনাকে আনতে চেয়েছিল?

পেইলাত: হ্যাঁ। তবে বলতে বাধ্য হচ্ছি, আবাহনী আমার সঙ্গে ভালো আচরণ করেনি। এটা বাংলাদেশে আসতে বিদেশি খেলোয়াড়দের অনীহা তৈরি করবে। আবাহনীর বিপক্ষে ম্যাচটি (আজ) আমার জন্য ব্যক্তিগত একটা চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই ম্যাচে অবশ্যই আমাকে জিততে হবে।

মোহামেডানের ডিফেন্ডার আশরাফুল ইসলাম ভালো পেনাল্টি কর্নার নিতে পারেন। তাঁকে কেমন দেখলেন?

পেইলাত: ওকে আমার খুব ভালো লেগেছে। পেনাল্টি কর্নারে নিখুঁত। ওর খুব ভালো ভবিষ্যৎ দেখতে পাচ্ছি।

আর্জেন্টিনা মানেই ফুটবল। আপনি হকি বেছে নিলেন কেন?

পেইলাত: যেকোনো দেশে খেলতে গেলেই এই প্রশ্নের উত্তরটা দিতে হয় আমাকে। পারিবারিকভাবেই আসলে আমরা হকি খেলি। আমার বাবা হকির গোলকিপার ও মা স্ট্রাইকার ছিলেন। তাঁরা ক্লাব পর্যায়ে খেলেন। আমার জন্মস্থান বুয়েনস এইরেসে আর্জেন্টিনার হকির জন্য সমৃদ্ধ জায়গা। সেখানেই আমার বেড়ে ওঠা। তিন বছর বয়স থেকেই হকি খেলা শুরু করি। কখনো ফুটবলার হওয়ার ইচ্ছাও জাগেনি। তবে বন্ধুদের সঙ্গে মজা করে অনেক সময় খেলেছি।

আপনি বিশ্বের অন্যতম সেরা হকি খেলোয়াড়। ফুটবলার হলে মেসিদের মতো জনপ্রিয়তা পেতেন মনে করেন?

পেইলাত: ফুটবল খুবই জনপ্রিয় খেলা। মেসি-ম্যারাডোনাকে বিশ্বের সবাই চেনেন। ম্যারাডোনার সঙ্গে আমি নিজেও দেখা করেছি। তাঁদের মতো জনপ্রিয় না হলেও আর্জেন্টিনার মানুষও আমাকে চেনেন। আর মেসি চাইলেই সিনেমা হল বা বিপণিবিতানে যেতে পারেন না। আমি কিন্তু পারি। একেকজনের জীবন একেক রকম।

আপনি নাকি রাগ করে আর্জেন্টিনা জাতীয় দল থেকে নিজেকে সরিয়ে রেখেছেন। কারণ কী?

পেইলাত: কোচ ও কিছু খেলোয়াড়ের সঙ্গে ঝামেলা হওয়ায় আমি নিজেকে সরিয়ে রেখেছি। ২০১৬ সালে রিও অলিম্পিকে সোনা জেতার পর থেকে দলে অনেক অনিয়ম ঢুকে পড়ে। কে খেলবে, কে খেলবে না, এই বিষয়গুলো কিছু মানুষ নিয়ন্ত্রণ করছিল। এসব ঠিক নয়। জাতীয় দলে এগুলো মেনে নেওয়া যায় না। তাই ২০১৯ থেকে নিজেকে সরিয়ে রেখেছি জাতীয় দল থেকে। ব্যক্তিগতভাবে বলব, এটা ভালো সিদ্ধান্ত। এ নিয়ে আমার কোনো আফসোস নেই।

প্রিমিয়ার হকি লিগে চ্যাম্পিয়নশিপ ধরে রাখতে চায় মোহামেডান। পারবেন মোহামেডানকে সহায়তা করতে?

পেইলাত: নিজের সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করব। মোহামেডানকে চ্যাম্পিয়ন করতে মাঠে সব অভিজ্ঞতা ঢেলে দেব।

সাক্ষাৎকার থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন