বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

এর মধ্যেই কাল আরও একবার শুয়াই সুস্থ—এটা প্রমাণের চেষ্টা চালিয়েছে চীন। টেনিস তারকার কিছু ছবি পোস্ট করে তিনি বহাল তবিয়তে আছেন, সেটা প্রমাণ করার চেষ্টা করেছেন রাষ্ট্রায়ত্ত সম্প্রচারমাধ্যমে এক সাংবাদিক। এবারও সে দাবি সন্দেহের দৃষ্টিতেই দেখছেন সবাই।

ইন্টারনেট ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের ব্যবহারে অনেক বিধিনিষেধ আরোপ করে রাখা চীনে টুইটারের বিকল্প নিজস্ব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ওয়েইবো। সেই ওয়েইবোতে ২ নভেম্বর পেং শুয়াই পোস্টে অভিযোগ তোলেন চীনের সাবেক ভাইস প্রিমিয়ার ঝ্যাং গাওলির বিরুদ্ধে। পোস্টে শুয়াই লেখেন, গাওলি তাঁকে যৌন সম্পর্কে বাধ্য করেন।

default-image

শুয়াই ২ নভেম্বর পোস্টটি করার প্রায় আধা ঘণ্টা পর থেকে তা আর দেখা যায়নি। পোস্ট তো পরের কথা, শুয়াইকেই এর পর থেকে আর দেখেননি কেউ! এ নিয়ে টেনিস বিশ্ব সরব হয়ে উঠেছে, শুয়াইয়ের খোঁজ চেয়ে নিয়মিত প্রচারণা চালাচ্ছে ডব্লুটিএ।

এদিকে চীনে টুইটার নিষিদ্ধ হলেও চীন সরকারের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক রাখা এক সাংবাদিক শেন শিওয়েই গতকাল টুইটারে বেশ কিছু ছবি পোস্ট করেছেন। শুয়াইয়ের তিনটি ছবি দিয়ে শিওয়েই লিখেছেন, ‘পেং শুয়াইয়ের উইচ্যাট মোমেন্টস। মাত্রই তিনটি নতুন ছবি দিয়েছেন আর বলেছেন, “শুভ সপ্তাহান্ত।” তাঁর বন্ধু এই তিন ছবি শেয়ার করেছেন। পেংয়ের উইক চ্যাটের মোমেন্টগুলোর স্ক্রিনশট দিচ্ছি।’

তবে এই ছবি দেখেও শুয়াইয়ের সুস্থতার ব্যাপারে নিশ্চিত হতে পারছেন না কেউ। সিএনএন বলছে, ছবিগুলো আসল কি না এবং কবে তোলা হয়েছে, সে ব্যাপারে কোনো তথ্য মিলছে না।

টেনিস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন