বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বছরটা এমনিতেই জোকোভিচের জন্য পয়া। এ পর্যন্ত বছরে যে তিনটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম, সব কটি জিতেছেন জোকোভিচ। অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ফ্রেঞ্চ ওপেন ও উইম্বলডন জেতা জোকোভিচের লক্ষ্য এবার অলিম্পিকে সোনা জয়।

একদিক থেকে বিবেচনা করলে ক্যারিয়ারের এই পর্যায়ে যেকোনো গ্র্যান্ড স্ল্যামের চেয়ে অলিম্পিকে সোনা জেতাটাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ জোকোভিচের কাছে। কারণ, জোকোভিচের অর্জনের খাতায় এই একটা জিনিসই নেই।

default-image

অপ্রাপ্তি ঘোচানোর লক্ষ্যে এর থেকে সহজ পথ হয়তো পেতেন না ২০ গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী এই তারকা। ফেদেরার-নাদালহীন টোকিও অলিম্পিকে সোনা জয়ের জন্য তিনিই সবচেয়ে বড় ফেবারিট এখন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বৃহস্পতিবার নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন সদ্যই মাত্তেও বেরেত্তিনিকে হারিয়ে উইম্বলডন জেতা জোকোভিচ। কোজিরু নামের এক খুদে ভক্তের সঙ্গে আলাপচারিতায় জোকোভিচ জানান, এর মধ্যেই টোকিওর টিকিট কাটা হয়ে গেছে তাঁর।

অলিম্পিকে জোকোভিচের সর্বোচ্চ সাফল্য ব্রোঞ্জ পদক জয়। ২০০৮ সালের বেইজিং অলিম্পিকে এই পদক পান জোকোভিচ।

কিছুদিন আগে হাঁটুর চোটের কারণে অলিম্পিক থেকে নাম কাটিয়ে নেন ফেদেরার। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হাঁটুর চোটের সমস্যাকে তুলে ধরেছেন ফেদেরার, ‘ঘাসের কোর্টে মৌসুম চলার সময়েই আমি হাঁটুর চোটে আক্রান্ত হই। আমি মেনে নিয়েছি, টোকিও অলিম্পিক গেমস থেকে সরে দাঁড়াতেই হবে। আমি খুবই হতাশ। নিজের দেশের প্রতিনিধিত্ব যতবার করেছি, প্রতিবার তৃপ্তি পেয়েছি অনেক।’

টেনিস থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন