বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বৈঠকে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী ফেসবুকের প্রতিনিধিদলকে বলেন, দেশে জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িকতা, নৈরাজ্য ও সামাজিক অস্থিরতা তৈরির গুজব ছড়াতে ব্যবহার করা হচ্ছে ফেসবুক। সমস্যা সমাধানে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি ব্যবহার করে আপত্তিকর পোস্ট অপসারণের পাশাপাশি ব্যবহারকারীদের পরিচয় নিশ্চিত করার পরামর্শ দেন তিনি। ফেসবুকের কমিউনিটি মানদণ্ড এ দেশের প্রেক্ষাপটে বিবেচনা করতে গুরুত্বারোপ করেন তিনে। পাশাপাশি বাংলাদেশে কার্যালয় চালুর পরামর্শও দেন।

সিমন মিলনার মন্ত্রীর পরামর্শ সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনার আশ্বাস দেন। বাংলাদেশে ব্রডব্যান্ড নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ, ফোর-জি মোবাইল নেটওয়ার্কের বিস্তার, ফাইভ-জি-চালু ও ফাইভ-জি তরঙ্গ নিলামসহ ডিজিটাল অবকাঠামো বিকাশে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রীর প্রশংসাও করেন তিনি।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগসচিব মো. খলিলুর রহমান, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাসিম পারভেজ, বাংলাদেশে ফেসবুকের পাবলিক পলিসি প্রধান সাবহানাজ রশীদ প্রমুখ।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন