বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিটিআরসির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিটিআরসি থেকে পিএসটিএন লাইসেন্সপ্রাপ্ত অপারেটর ওয়ার্ল্ড টেল বাংলাদেশ লিমিটেডের একজন শেয়ারহোল্ডার দাবি করা নাঈম এ চৌধুরী ২০২১ সালের ১৯ মার্চ বিটিআরসি এবং বাংলালিংকের মূল প্রতিষ্ঠান ভিওনের বিরুদ্ধে মামলাটি করেন। গত বছরের ৮ মার্চ বিটিআরসির তরঙ্গ নিলাম অনুষ্ঠিত হয়। নাঈম দাবি করেন, ওই নিলামের কারণে তার প্রতিষ্ঠান ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। তাই তিনি বিটিআরসি এবং ভিওনের বিরুদ্ধে ২ দশমিক ৩৯ বিলিয়ন ডলারের ক্ষতিপূরণ দাবি করে মামলা করেন।

নাঈম চৌধুরীর মামলাটি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল আদালতে স্থানান্তর করা হয়। পরে গত বছরের ১ অক্টোবর বিটিআরসি মামলাটি খারিজের জন্য আদালতে একটি আবেদন করে। বিটিআরসি তাতে জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের সার্বভৌম দায়মুক্তি আইন অনুযায়ী বিটিআরসির বিরুদ্ধে নাঈম চৌধুরীর দাবিগুলো গ্রহণযোগ্য নয়।

গতকাল বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল কোর্টের বিচারক জন পি ক্রোনানের আদালত বিটিআরসির আবেদন মঞ্জুর করেন এবং মামলাটি আদালতের এখতিয়ারবহির্ভূত হওয়ায় তা খারিজ করে দেন।

মার্কিন আদালত আরও জানিয়েছেন, মামলার অপর বিবাদী ভিওনের ব্যাপারে বাদী যদি একটি সংশোধিত অভিযোগ দায়ের করতে চান ও মামলাটিতে আরও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে আগ্রহী হন, তাহলে তাঁকে আগামী ২৯ এপ্রিল ২০২২–এর মধ্যে তা সম্পন্ন করতে হবে। নয়তো ভিওনের মামলাও খারিজ হয়ে যাবে। এই মামলা পরিচালনার জন্য বিটিআরসি বাংলাদেশের স্থানীয় অ্যালায়েন্স লজ–এর আইনজীবী মঈন গনি ও নিউইয়র্কের ফোলি হোয়াগ এলএলপিকে আইনি পরামর্শদাতা হিসেবে নিয়োগ করেছিল।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন