গতকাল শনিবার নারায়ণগঞ্জের ভুলতায় সুবর্ণগ্রাম অ্যামিউজমেন্ট পার্ক অ্যান্ড রিসোর্টে আয়োজিত ‘বিসিএসের ৩৫ বছর উদ্‌যাপন’ অনুষ্ঠান উদ্বোধন করে তিনি আরও বলেন, বিসিএসের প্রতি আমার পূর্ণ সমর্থন আগেও ছিল, ভবিষ্যতেও থাকবে।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন বিসিএসের উপদেষ্টা স্বদেশ রঞ্জন সাহা, বিসিএসের প্রথম সভাপতি এস এম ইকবাল, দ্য কম্পিউটারসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আতিক-ই-রব্বানি ও বর্তমান মহাসচিব মুহাম্মদ মনিরুল ইসলাম।

বিসিএস সভাপতি শাহিদ-উল-মুনীর বলেন, আশির দশক থেকেই দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতকে এগিয়ে নিতে কাজ করছে বিসিএস। ৩৫ বছরের এই যাত্রায় কম্পিউটারকে ভ্যাট–ট্যাক্স মুক্ত করে মানুষের কাছে সহজলভ্য করার পাশাপাশি প্রযুক্তি ব্যবসায়ী এবং ভোক্তাদের স্বার্থ রক্ষায় কাজ করেছে সংগঠনটি। প্রযুক্তি খাতে আমাদের এ প্রচেষ্টা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

দিনব্যাপী এ আয়োজনের দ্বিতীয় পর্বে ১৯৮৭ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত বিসিএসের সব কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এবং ‘৩৫ বছর উদ্‌যাপন’ অনুষ্ঠানের সহযোগী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের ক্রেস্ট দেন আইসিটি বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব এন এম জিয়াউল আলম।
অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ধরনের খেলার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ‘তরুণ প্রজন্মের ভাবনায় বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক রচনা প্রতিযোগিতা আয়োজন করা হয়।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন