default-image

ভারত ভ্রমণ শেষে অনির্ধারিত সফরে আফগানিস্তানে গেছেন মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেনারেল লয়েড অস্টিন। আজ রোববার আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল পৌঁছান তিনি। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসনে পেন্টাগন প্রধান হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর এটাই তাঁর প্রথম আফগানিস্তান সফর।

আফগান গণমাধ্যমের বরাতে আল–জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আফগানিস্তান সফরকালে দেশটির প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনিসহ আফগান প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করতে পারেন অস্টিন।

বিজ্ঞাপন

দুই দশকের বেশি সময় ধরে আফগানিস্তানের মাটিতে মার্কিন সেনা উপস্থিতি রয়েছে। আগামী ১ মে দেশটি থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পরিকল্পনা এগিয়ে নিচ্ছে ওয়াশিংটন। যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পরিকল্পনা ছিল এটি।

তবে গত সপ্তাহে বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন জানান, আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারে ১ মের সময়সীমা মেনে চলা কঠিন হয়ে যেতে পারে।

বাইডেনের এমন মন্তব্যের পর আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারে নতুন করে সংশয় দেখা দিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এমন মনোভাবের বিরোধিতা করেছে আফগান তালেবান। সংগঠনটির শান্তি আলোচনা দলের সদস্য সুহেইল শাহিন বলেন, ‘যদি ১ মের পরেও আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা থাকে, তবে সেটা চুক্তির শর্ত ভঙ্গের শামিল হবে। সেটা আমাদের পক্ষ থেকে হবে না... আর তাদের পক্ষ থেকে চুক্তি ভঙ্গ হলে সেটার প্রতিক্রিয়া জানানো হবে।’

বাইডেনের মন্তব্যের পর তৈরি হওয়া সংশয় ও সেটা নিয়ে তালেবানের পক্ষ থেকে প্রতিক্রিয়া জানানোর পরই অনির্ধারিত সফরে কাবুল গেলেন লয়েড অস্টিন।

এর আগে ভারত সফরে এসে দেশটিতে গণতান্ত্রিক পরিবেশ ও সংখ্যালঘুদের মানবাধিকার হরণের প্রসঙ্গ তুলে আলোচনার জন্ম দেন মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। গতকাল শনিবার সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে আলোচনায় এই প্রসঙ্গের অবতারণার সুযোগ তাঁর ছিল না। তবে তিনি অন্য ভারতীয় মন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনার সময় এই বিষয়ে তাঁদের উদ্বেগের কথা জানিয়েছেন।

এই সময় মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমাদের মনে রাখা দরকার ভারত আমাদের এক গুরুত্বপূর্ণ বন্ধু ও শরিক। সঙ্গীদের সঙ্গে এই ধরনের আলোচনার প্রয়োজন আছে। সেই আলোচনা করতে আমরা স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি। অর্থপূর্ণভাবে এই ধরনের আলোচনা হওয়া দরকার। সম্পর্কও এগিয়ে নিয়ে যাওয়া দরকার।’

সফরকালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ছাড়াও জেনারেল অস্টিন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সঙ্গেও বৈঠক করেন।

বিজ্ঞাপন
বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন