বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী বলেন, অস্ট্রেলিয়ার পারমাণবিক শক্তিচালিত সাবমেরিন তৈরির বিষয়ে দেশটির প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের সহযোগিতায় তারা এ সাবমেরিন তৈরি করছে।

এদিকে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র ইন্দো-প্যাসিফিক চুক্তির অধীনে অস্ট্রেলিয়াকে সাবমেরিন তৈরির সুযোগ করে দিচ্ছে। মূলত, চীনকে ঠেকাতে এ চুক্তি করা হয়েছে। এর আগে ১৯৪০-এর দশকে ‘ফাইভ আইস’ নামে একটি জোট গঠিত হয়েছিল। এ জোটে রয়েছে কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড। অস্ট্রেলিয়ার সাবমেরিন তৈরির ঘোষণা আসার পর দুটি চুক্তি নিয়েই কথা বলেন জেসিন্ডা আরডার্ন। তিনি বলেন, নতুন যে চুক্তি হয়েছে, এ চুক্তির ফলে নিরাপত্তা ও গোয়েন্দাসংক্রান্ত, আদান–প্রদানসংক্রান্ত পুরোনো যে চুক্তি রয়েছে, তার ওপর কোনো প্রভাব পড়বে না।

জেসিন্ডা আরডার্ন বলেন, ‘আমি এটা দেখে সন্তুষ্ট যে আমাদের মিত্রদেশগুলো এ অঞ্চলের ওপর নজর দিয়েছে।’ তবে পারমাণবিক শক্তিচালিত যানবাহন নিয়ে অবস্থান পরিবর্তন করেনি নিউজিল্যান্ড। ১৯৮৫ সালে দেশটি এমন বাহনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন