default-image

ইউরোপের দেশ হাঙ্গেরিতে করোনাভাইরাসের কয়েক ধরনের টিকাই দেওয়া হচ্ছে। যদিও টিকা নেওয়ার ক্ষেত্রে গ্রহীতার টিকা পছন্দের কোনো সুযোগ নেই। এই অপ্রাপ্তি ঘোচাতে দেশটির একটি পেস্ট্রিশপ অভিনব এক কৌশল নিয়েছে। তারা বিভিন্ন টিকার রং আর থিমে তৈরি করেছে নতুন এক মিষ্টান্ন। গ্রাহক যেকোনো টিকার থিমের মিষ্টান্ন কিনতে পারেন সেখান থেকে।

জানা গেছে, হাঙ্গেরিতে করোনার টিকা পছন্দ করার সুযোগ না থাকায় কিছুটা অসন্তুষ্ট টিকাগ্রাহকেরা। একই টিকা যাঁরা নিয়েছেন, নিজেদের মধ্যে যোগাযোগে তাঁদের অনেকেই ফেসবুকে গ্রুপ খুলে সংযুক্তও হচ্ছেন। এই পরিস্থিতিতেই টিকার থিমের ওই মিষ্টান্ন আলোচনায় উঠে এসেছে।

বিজ্ঞাপন

হাঙ্গেরির রাজধানী বুদাপেস্টের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ছোট শহর ভেরেসেগিহাজের একটি পেস্ট্রিশপ সুলিয়ান। তারাই ওই অভিনব মিষ্টান্ন নিয়ে হাজির হয়েছে। পেস্ট্রিশপটি বিভিন্ন রঙের জেলি দিয়ে ওই মিষ্টান্ন তৈরি করেছে। প্রতিটা রং করোনার একেকটি টিকার প্রতিনিধিত্ব করে। হলুদ (ইয়েলো) রং প্রতিনিধিত্ব করে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার। এই টিকার তরলের রং হলদেটে। সবুজ (গ্রিন) জেলি করে ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকার প্রতিনিধিত্ব। কিছুটা গাঢ় রঙের জেলি চীনের সিনোফার্মের তৈরি টিকার প্রতিনিধিত্ব করে। কমলা রঙের জেলি যেন রাশিয়ার স্পুতনিক-ভিকেই স্মরণ করিয়ে দেয়। আর নীল রঙের জেলি মনে করায় যুক্তরাষ্ট্রের মডার্নার টিকা। এসব মিষ্টান্নের ওপর সিরিঞ্জ সাজাতেও ভোলেনি প্রস্তুতকারকেরা।

এ ব্যাপারে সুলিয়ান পেস্ট্রিশপের কর্মী কাতালিন বেনকো বলেন, ‘এখানে মানুষ পছন্দ অনুযায়ী মিষ্টান্ন নিতে পারেন। কোনো নিবন্ধনের প্রয়োজন নেই, কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও নেই। যে কেউ এই খাবার খেতে পারে। এর একমাত্র পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হলো, খাওয়ার পর আপনার মুখে তৃপ্তির হাসি ফুটবে।’

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন