default-image

ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তায় পুলিশ সদর দপ্তরে হামলার চেষ্টা হয়েছে। বুধবার এক নারী সদর দপ্তরে প্রবেশ করে পুলিশ সদস্যদের দিকে পিস্তল তাক করেন। কিন্তু গুলি ছোড়ার সুযোগ পাননি তিনি। তাঁর আগেই পুলিশের পাল্টা গুলিতে নিহত হন ওই নারী।

দেশটিতে সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এই ধারাবাহিকতায় আজ পুলিশ সদর দপ্তরে হামলার চেষ্টা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

টেলিভিশনে প্রচারিত ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়,  এক নারী হেঁটে পুলিশ সদর দপ্তরে প্রবেশ করছেন। এ সময় তাঁকে পিস্তল তাক করতে দেখা যায়। এর পর পরই পুলিশের গুলিতে লুটিয়ে পড়েন ওই নারী। গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে, এই ঘটনাকে সন্ত্রাসী হামলা বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এই ঘটনার পর পুলিশ সদর দপ্তরের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই ঘটনার আগেই ইন্দোনেশিয়ার কর্তৃপক্ষ সন্ত্রাসবিরোধী সতর্কতা জারি করেছে। তাতে বলা হয়েছে, দেশটির পুলিশ ও ধর্মীয় স্থাপনাগুলো হামলার ঝুঁকিতে রয়েছে।

রোববার ইন্দোনেশিয়ার দক্ষিণ সুলাওয়েসি এলাকার মাকাসার শহরে রোমান ক্যাথলিকদের একটি গির্জার বাইরে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে আহত হন অন্তত ২০ জন। পুলিশ জানিয়েছে, এই হামলার পেছনে সদ্যবিবাহিত এক দম্পতি অংশ নেন। তাঁরা ইসলামিক স্টেটের (আইএস) অনুসারী স্থানীয় জামাহ আনশারুত দৌলার (জেএডি) সমর্থক।

সাম্প্রতিক বছরগুলোয় একের পর এক সন্ত্রাসী হামলার শিকার হচ্ছে ইন্দোনেশিয়া।

২০১৮ সালের মে মাসেও দেশটির সুরাবায়া এলাকায় গির্জা ও পুলিশের টহলকেন্দ্রে হামলা চালানোর অভিযোগ আছে জেএডির বিরুদ্ধে। ওই হামলায় ৩০ জনের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছিল।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন