ইরানের যেকোনো হামলার পাল্টা জবাব হবে হাজার গুণ: ট্রাম্প

বিজ্ঞাপন
default-image

ইরানের যেকোনো হামলার পাল্টা জবাব এক হাজার গুণ বেশি হবে বলে হুঁশিয়ার করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। স্থানীয় সময় গতকাল সোমবার তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন।

নাম প্রকাশ না করা কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে মার্কিন গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়, আগামী নভেম্বরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে দক্ষিণ আফ্রিকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে হত্যার ষড়যন্ত্র করছে ইরান। দেশটি তাদের রেভল্যুশনারি গার্ডের অভিজাত কুদস ফোর্সের কমান্ডার মেজর জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার প্রতিশোধ নেওয়ার পরিকল্পনা করছে, এমন তথ্য জানার পর এ হুঁশিয়ারি দেন ট্রাম্প।ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র গতকাল এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এএফপির খবরে জানানো হয়, ট্রাম্প এক টুইটে বলেন, ‘গণমাধ্যমের খবর অনুসারে ইরান হত্যার বা হামলার পরিকল্পনা করতে পারে। সন্ত্রাসী নেতা কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার শোধ নিতে ইরান এ রকম ষড়যন্ত্র করছে।’ টুইটে ট্রাম্প বলেন, ‘ইরানের যেকোনো ধরনের হামলার জবাব ফিরিয়ে দেওয়া হবে হাজার গুণে।’

‘বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ইরান হত্যা চালানোর ষড়যন্ত্র করছে। ইরান ইউরোপ ও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মানুষকে হত্যা করেছে। আমরা এ অভিযোগ গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করছি।’
মাইক পম্পেও, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ইরানের বিপ্লবের পর থেকে ওয়াশিংটন ও তেহরানের মধ্যে উত্তেজনাকর সম্পর্ক বিরাজ করছে। ২০১৮ সালের মে মাসে ইরানের সঙ্গে আন্তর্জাতিক পারমাণবিক চুক্তি থেকে সরে আসেন ট্রাম্প। এরপর থেকে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক আরও বেশি উত্তেজনাকর হয়ে ওঠে।
এ বছরের জানুয়ারিতে বাগদাদে মার্কিন ড্রোন হামলায় কাসেম সোলাইমানি নিহত হন। ইরানে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ অক্টোবরে শেষ হবে। এ মেয়াদ বাড়াতে চাপ প্রয়োগ করছে ওয়াশিংটন। ইরানে জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা প্রয়োগেও চাপ দিচ্ছে ওয়াশিংটন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ষড়যন্ত্রের অভিযোগ অস্বীকার ইরানের

দক্ষিণ আফ্রিকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত লানা মার্কসকে হুমকি দেওয়ার বিষয়ে সরাসরি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। লানা মার্কস ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ মিত্র। ফক্স নিউজকে পম্পেও বলেন, ‘বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ইরান হত্যা চালানোর ষড়যন্ত্র করছে। ইরান ইউরোপ ও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মানুষকে হত্যা করেছে। আমরা এ অভিযোগ গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করছি।’ তিনি বলেন, ‘আমরা ইরানকে সাফ জানিয়ে দিতে চাই, যেকোনো জায়গায় যেকোনো সময় মার্কিন কূটনৈতিক, রাষ্ট্রদূত অথবা যেকোনো কর্মকর্তার ওপর হামলা একেবারেই মেনে নেওয়া হবে না।’

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র গতকাল এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, হত্যার পরিকল্পনার অভিযোগ ভিত্তিহীন। এটি আন্তর্জাতিক মহলে ইরানবিরোধী আবহ তৈরির পুরোনো ও বাজে কৌশল।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন