ক্রেমলিনের ভাষ্য, উভয় নেতা দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতার মূল বিষয়গুলোর পাশাপাশি দক্ষিণ এশিয়ার উন্নয়নসহ প্রাসঙ্গিক আঞ্চলিক বিষয় নিয়ে আলোচনার পরিকল্পনা করেছেন। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান দুই দিনের সফরে মস্কোর উদ্দেশে রওনা হওয়ার এক দিন আগে ক্রেমলিন এ বিবৃতি দেয়।

পররাষ্ট্র দপ্তরের বিবৃতির বরাতে পাকিস্তানের জিয়ো টিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, দ্বিপক্ষীয় শীর্ষ বৈঠকে ইমরান খানের সঙ্গে একটি উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদল রয়েছেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, জ্বালানি সহযোগিতাসহ দুই দেশের সম্পর্কের সামগ্রিক বিন্যাস পর্যালোচনা করবেন পুতিন ও ইমরান খান।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দপ্তরের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ইসলামোফোবিয়া, আফগানিস্তান পরিস্থিতিসহ প্রধান আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক ইস্যুতেও দুই নেতা বিশদ আলোচনা করবেন।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর বহুমুখী এ সফর পাকিস্তান-রাশিয়ার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ককে আরও গভীর করতে ও বিভিন্ন ক্ষেত্রে পারস্পরিক সহযোগিতা বৃদ্ধিতে অবদান রাখবে।

ইমরান খানের সফরসঙ্গী হিসেবে থাকবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি, জ্বালানিমন্ত্রী হাম্মাদ আজহার, তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী, পরিকল্পনামন্ত্রী আসাদ উমর, উন্নয়নবিষয়ক মন্ত্রী আবদুল রাজাক দাউদ, সংস্কারবিষয়ক মন্ত্রী মোয়েদ ইউসুফসহ অন্যরা।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন