বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ প্রসঙ্গে এসআইপিআরআইয়ের গবেষক আলেকজান্দ্রা মার্কস্টেইনার বলেন, করোনাকালে অভিবাসন বেড়েছে। এ প্রভাব মোকাবিলায় অস্ত্র কারখানাগুলোকে বেশি অর্থ দিচ্ছে বিভিন্ন দেশের সরকার। এ ছাড়া বিশ্বজুড়ে সামরিক খরচ বেড়েছে।

অস্ত্র বিক্রির শীর্ষে থাকা পাঁচটি প্রতিষ্ঠান যুক্তরাষ্ট্রের। দেশটির প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে লকহিড-মার্টিন। তারা এক বছরে অস্ত্র বিক্রি করেছে ৫ হাজার ৮২০ কোটি ডলারের। এ প্রতিষ্ঠান যে অস্ত্রগুলো বিক্রি করে, সেগুলোর মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র ও এফ-৩৫ ফাইটার জেট। এরপরই রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বিএই। ইউরোপের প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে এটি সবচেয়ে বেশি অস্ত্র বিক্রি করেছে। এরপরই রয়েছে চীনের তিনটি প্রতিষ্ঠান।

শীর্ষ ১০০টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে থাকা চীনের প্রতিষ্ঠানগুলো অস্ত্র বিক্রি করেছে ৬ হাজার ৬০০ কোটি ডলারের। ২০১৯ সালের তুলনায় চীনের অস্ত্র বিক্রি বেড়েছে দেড় শতাংশ।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন